নওগাঁরাজশাহী সংবাদ

নওগাঁর মহাদেবপুরে জোর করে জমি দখল: পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয়ার অভিযোগ

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর মহাদেবপুরে জোর করে টিন দিয়ে ঘিরে ২২ বিঘা জমি দখল করে নিলেও ব্যবস্থা না নেয়ার অভিযোগ উঠেছে মহাদেবপুর থানা পুলিশের বিরুদ্ধে। জমি দখলের ঘটনায় নওগাঁর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত থেকে ১৪৪ ধারা জারি করে শৃঙ্খলা রক্ষার আদেশ দেয়া হয়েছে। নওগাঁর মহাদেবপুর থানার পুরাতন হাসপাতাল এলাকার মৃত হাজী ঝড়– মোহাম্মাদের ছেলে আব্দুর রহমান মানিক আবেদন করলেও এ আদেশ দেন আদালত। সেই সাথে বিষয়টি তদন্ত করে রিপোর্ট প্রদানের জন্য মহাদেবপুর থানার সহকারী কমিশনার ভূমিকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে ও পুলিশকে সম্প্রীতি রক্ষারও নির্দেশ দেয়া হয়। এখানে প্রতিপক্ষ করা হয়েছে মহাদেবপুর থানার শিবপুর গ্রামের মৃত ইসলামের ছেলে পলাশ (৩৫), শহিদুল (৩০), এনামুল

(৩৫) ও একই থানার কুঞ্জবন এলাকার লুৎফরের ছেলে মানিক। ভুক্তভোগী এ্যাড. আব্দুর রহমান অভিযোগ করে জানান, গত ১৭ জানুয়ারী থেকে স্থানীয় পলাশ, শহিদুল, এনামুল ও মানিকসহ কিছু ব্যক্তি জোরপূর্বক তাদের ৪২ বছরের ভোগ দখল করে খাওয়া ২২ বিঘা জমি টিন দিয়ে ঘিরে দখল করে নেয়। ১৭ তারিখ থেকে এ পর্যন্ত তারা দখলবাজি চালিয়ে যাচ্ছিলো। ওইদিন ভোর থেকে দখল শুরু করে। বিষয়টি জানার সাথে সাথেই মহাদেবপুর থানার ওসিকে জানানো হয়। ওসি তাদের জানান ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কিন্ত কোন পদক্ষেপ তিনি গ্রহণ করেননি। এমনকি ঘটনাস্থলেও যাননি। শুধু বলেন দেখছি। বিষয়টি নওগাঁর পুলিশ সুপারকে

জানানো হলে তিনিও ওসিকে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বললেও ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। তারা পুলিশের পক্ষ থেকে কোন সহায়তা পাননি। তিনি আরো অভিযোগ করে জানান, ২২ বিঘা জমির উপর পুকুর, আম বাগান, মুরগি ও গরুর খামার ও বাড়ি ঘর রয়েছে। সেই জমি তারা দখল করে নিয়েছে। তারা ১৯৯৫ সালে মামলা করলে সেটি খারিজ হয়ে যায়। এরপরও ছানি করলেও সেটিও খারিজ হয়ে যায়। এদিকে, ঘটনার দিন সকালে ভুক্তভোগীদের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেয়ে মহাদেবপুর থানার ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েলকে বিষয়টি অবহিত করলে তিনি বলেন, পুলিশ পাঠানো হয়েছিল কিন্ত এমন কোন ঘটনা ঘটেনি। ঘটনাস্থল ফাঁকা ছিল। আর সরজমিনে

ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, পুরো জমিটি প্রতিপক্ষরা জোরপূর্বক টিন দিয়ে ঘিরে দখর করে নিয়েছে। বিষয়টি নওগাঁর পুলিশ সুপারকে অবহিত করা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য ওসিকে বলা হয়েছে। ভুক্তভোগী আব্দুর রহমান বলেন, অরাজকতা জোরপূর্বক জমি দখল করে নিলে আমরা গিয়ে কোথায় দাঁড়াবো। প্রতিপক্ষ স্থানীয় পুলিশকে প্রভাবিত করে এমন অন্যায় করে জমি জবর দখল করে নিয়েছে। পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের বিষয়টি নিয়ে সুনজর দেয়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

জানতে চাইলে সংবাদ চলমানকে মহাদেবপুর থানার ওসি জানান, ঘটনাটি জানা মাত্রই ঘটনাস্থল পুলিশ পরিদর্শন করেছে। এবং তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button