নওগাঁরাজশাহী সংবাদ

সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি, যুবলীগ নেত্রী আটক

ভুক্তভোগি মামলা না করায় মুচলেকায় ছাড়

সংবাদ চলমান ডেস্কঃ  সাংবাদিক পরিচয়ে জেলার বিভিন্ন স্থানে চাঁদাবাজির সময় মমতাজ বেগম সাথী নামে এক মহিলা যুবলীগ নেত্রীকে হাতেনাতে জনতা কর্তৃক আটক  করা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার নজিপুর পৌর শহরে হাতেনাতে আটকের পর তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া স্থানীয়রা।

জানা যায়, কথিত নারী সাংবাদিক মমতাজ বেগম সাথী “Channel 69 Tv” এর নওগাঁ জেলা সংবাদদাতা হিসেবে পরিচয় দিয়ে জেলার বিভিন্ন বেকারি, মিষ্টান্ন দোকান ও ফ্যাক্টরিতে গিয়ে ক্যামেরাম্যান জাকারিয়া হোসেন (৩০) সহায়তায় অনিয়মের খবর প্রচারের হুমকি দিয়ে চাঁদাবাজি করে আসছেন।

বৃহস্পতিবার জেলার পত্নীতলা উপজেলার নজিপুরে মিষ্টান্ন দোকানে গিয়ে চাঁদাবাজি করার সময় তাদের ধরে পুলিশের নিকট উত্তেজিত জনতা তুলে দেয়।

জানা যায়, মমতাজ বেগম সাথী রাণীনগর উপজেলা মহিলা যুবলীগের সভাপতি ও উপজেলার দাউদপুর গ্রামের আশিকুজ্জামান (বিপ্লব) এর স্ত্রী এবং রাণীনগর উপজেলার কাশিমপুর গ্রামের মোহাম্মদ আলীর মেয়ে।

পুলিশ জানায়, মমতাজ বেগমের স্বামী প্রায় দুই বৎসর যাবত অস্ত্র ও মাদক মামলায় কারাগারে রয়েছেন। মমতাজের বিরুদ্ধেও একাধিক মানুষকে ব্লাক মেইল করে মোটা অর্থ আদায়ের অভিযোগে কোর্টে মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

পত্নীতলা থানার ওসি পরিমল কুমার চক্রবর্তী জানান, সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে জনতা কর্তৃক মমতাজ বেগম ও জাকারিয়াকে পুলিশের হাতে তুলে দেয় স্থানীয়রা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে থানা হেফাজতে রাখা হয়। পরে ভুক্তভোগিরা চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা না করায়-মুচলেখা নিয়ে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়

বলীগের সভাপতি ও উপজেলার দাউদপুর গ্রামের আশিকুজ্জামান (বিপ্লব) এর স্ত্রী এবং রাণীনগর উপজেলার কাশিমপুর গ্রামের মোহাম্মদ আলীর মেয়ে।

পুলিশ জানায়, মমতাজ বেগমের স্বামী প্রায় দুই বৎসর যাবত অস্ত্র ও মাদক মামলায় কারাগারে রয়েছেন। মমতাজের বিরুদ্ধেও একাধিক মানুষকে ব্লাক মেইল করে মোটা অর্থ আদায়ের অভিযোগে কোর্টে মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

পত্নীতলা থানার ওসি পরিমল কুমার চক্রবর্তী জানান, সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে জনতা কর্তৃক মমতাজ বেগম ও জাকারিয়াকে পুলিশের হাতে তুলে দেয় স্থানীয়রা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে থানা হেফাজতে রাখা হয়। পরে ভুক্তভোগিরা চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা না করায়-মুচলেখা নিয়ে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button