বাঘারাজশাহী সংবাদ

বাঘায় সহকারী গ্রন্থাগারিক নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ

বাঘা প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাঘা উপজেলার খোর্দ্দ বাউসা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী গ্রন্থাগারিক পদে নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক বাদি হয়ে হয়ে রাজশাহী অঞ্চলের উপ-পরিচালক মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালের ৭ ডিসেম্বর একটি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সহকারি প্রধান শিক্ষক ও সহকারি গ্রন্থাগারিক পদে দরখাস্তের আহবান করা হয়। ২৭ ডিসেম্বর বাছাই কমিটি ও নিয়োগ বোর্ড গ্রহণ করা হয়। ২০১৭ সালের ৫ জুন নিয়াগ বোর্ড গঠন করে। ৬ জনু নিয়োগ বোর্ডের সুপারিশে প্রধান শিক্ষক ও পরিচালনা কমিটি নিয়োগের সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন। বিকেল সাড়ে ৩টায় পরিচালনা কমিটির সভায় তাকে যোগদানপত্র অনুমোদন দেখানো হয়। কিন্তু নিয়োগকৃত সহকারি গ্রন্থাগারিক যোগদান দেখানো হলেও তিনি বিদ্যালয়ে উপস্থিত হননি এবং হাজিরা খাতায় কোন স্বাক্ষর নেই। বিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রতিনিধিকে এ বিষয়ে কিছুই জানানো হয়নি। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, ব্যানবেইজে ২০১৯ সালের ১৫ ডিসেম্বর আইএমএস তথ্য ফরম পূরণে শিক্ষক কর্মচারীর তালিকায় সহকারি গ্রন্থাগারিক পদ শুন্য দেখানো হয়েছে।

তারপরেও ২০১৯ সালের ৮ আগষ্ট সহকারি গ্রন্থাগারিকের বেতন ভাতার প্রাপ্তির জন্য অনলাইনে প্রথম আবেদন করা হয়। যে কোন কারণ বশতঃ আবেদনটি বাতিল হয়ে যায়। ৮ ডিসেম্বর আবারও আবেদন করেন। এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষকের সেচ্ছাচারিতা দূর্নীতি অনিয়ম ও ক্ষমতার দাপটে এলাকার সুধিজন, অভিভাবক, শিক্ষার্থীদের মাঝে হতাশা ও ক্ষোভ দেয়া দিয়েছে।

এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষক মতিউর রহমান বলেন, পরিচালনা কমিটির সিদ্ধান্তে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। সঠিকভাবে বিদ্যালয় পরিচালনা করতে গিয়ে কিছু শিক্ষক বেশি সুযোগ সুবিধা গ্রহন করতে চায়। এ সুযোগ না দেয়ায় আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা বলেন, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button