সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

সেনাবাহিনি পরিচয়ে প্রেম অতপর…..

সংবাদ চলমান ডেস্ক : সরকারি চাকরিজীবী পরিচয়ে নারীদের সঙ্গে প্রেম, পরে দৈহিক সম্পর্ক ঘটিয়ে ব্ল্যাকমেইল! এটাই তার পেশা। এক কথায় তিনি ‘পেশাদার প্রেমিক।’ তিনি কখনও সুমন আর্মি, কখনও সুমন হাসান আবার সুমন মোল্লা নামেও পরিচিত। আসল নাম আশরাফুল মোল্লা (৩৮)। আশরাফুল নড়াইল সদর উপজেলার বোড়ামারা গ্রামের আকবর মোল্লার ছেলে।

যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) তৌহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, জেলার বাঘারপাড়া থানার নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে অজ্ঞাত আসামির নামে মামলা হলে সূত্র ধরে ‘পেশাদার প্রেমিক’ আশরাফুল মোল্লাকে শনাক্তের পর গ্রেফতার করে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে যশোর শহরের শংকরপুর জমাদ্দারপাড়া এলাকার ভাড়া বাসা থেকে তাকে গ্রেফতারের পর মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, ২০১১ সাল থেকে আশরাফুল নারীদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিলেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অন্তত ২০ জন নারীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের পর ব্ল্যাকমেইলের কথা স্বীকার করেছেন।

তার কাছ থেকে সেনাবাহিনীর ভুয়া আইডি কার্ড, তিনটি ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র, সেনাবাহিনীর একটি ক্যাপ, নেমপ্লেটযুক্ত জ্যাকেট, সোয়েটার, ১৩টি সিম কার্ড, ধর্ষণের ভিডিও ধারণকৃত একটি মেমোরি কার্ড ও দুটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় প্রতারণাসহ বিভিন্ন অভিযোগে ৪টি মামলা রয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল আল নাসের, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অপু সরোয়ার, জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ওসি মারুফ আহমেদ

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button