সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

অপহরণের ৩ দিন পর শিশুর লাশ উদ্ধার

সংবাদ চলমান ডেস্ক : ঢাকার ধামরাইয়ের বাইশাকান্দা এলাকা থেকে অপহরণের ৩ দিন পর মবিন নামে পাঁচ বছরের শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এঘটনায় অপহরণকারী আজিজুল নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বুধবার সকালে শিশু মবিনের মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইবনে ফরহাদ। এর আগে মঙ্গলবার রাতে ধামরাইয়ের সীমান্তবর্তী গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈর উপজেলার থানাধীন মঙ্গলবাড়ি এলাকার এক খালে কচুরিপানার ভিতর লুকানো অবস্থায় শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

শিশু মবিন (৫) ধামরাই উপজেলার বাইশাকান্দা ইউনিয়নের মঙ্গলবাড়ি গ্রামের প্রবাসী আব্দুল করিমের ছেলে। আর গ্রেপ্তার আজিজুল ইসলাম (৩০) একই গ্রামের মফিজ উদ্দিনের বাড়িতে কেয়ার টেকারের কাজ করতেন। তার বাড়ি কুড়িগ্রাম জেলায়। পুলিশ জানায়, গত ৭ ডিসেম্বর বিকেলে নিজ বাড়ির পাশে একটি মাঠে খেলতে গিয়ে নিখোঁজ হয় মবিন।

এরপর তাকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে ধামরাই থানায় মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগীর পরিবার। এরপর পুলিশ অভিযান চালিয়ে শিশু মবিনকে অপহরণের ঘটনায় আজিজুলকে গ্রেপ্তার করে।

পরে তার দেওয়া তথ্য মতে বুধবার সকালে মঙ্গলবারি এলাকার এক খাল থেকে মবিনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইবনে ফরহাদ জানান, শিশু মবিনকে মুক্তিপণ আদায়ের উদ্দেশ্যেই খেলার মাঠ থেকে অপহরণ করেন পাশ্ববর্তী বাড়ির কেয়ারটেকার আজিজুল।

ভুক্তভোগীর পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। পরে ফোন নম্বরে লেখা চিরকুট উদ্ধার করা হয়। যেখানে লিখা ছিল- ছেলেকে ফিরে পেতে এই নম্বরে যোগাযোগ কর।

পরবর্তীতে পুলিশ প্রযুক্তিগত সহায়তায় ওই ফোন নম্বরের সূত্র ধরে মবিনের পাশের বাড়ির কেয়ারটেকার আজিজুলকে গেপ্তার করে।

পরে আজিজুলের স্বীকারোক্তিতে খালের মধ্যে কচুরিপানার ভিতর থেকে শিশু মবিনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় আজিজুলের সঙ্গে আরও কেউ জড়িত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button