রাজশাহীরাজশাহী সংবাদ

ট্রাফিক বিভাগের কর্তাদের নিয়ে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন

নতুন আইনের সাথে নতুন কৌশল অবলম্বন করছেন এক শ্রেনির অসাধু পুলিশ সদস্যরা

সাথীঃ সরকারের নতুন আইনের সাথে কিছু নতুন কৌশল অবলম্বন করছেন এক শ্রেনির অসাধু পুলিশ সদস্যরা বিশেষ করে পুলিশ সার্জেন্টদের ক্ষেত্রে এই অনিয়ম লাগামহীন হয়ে পড়েছে। আর এদের সাথে সহযোগীতা করছে ট্রাফিক বিভাগের টি এস আই নামীয় পদ ধারি ব্যক্তিরা।

একাধিক অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে ট্রাফিক বিভাগের এমন তথ্য। দীর্ঘ অনু অনুসন্ধানে জানা গেছে ট্রাফিক বিভাগের টি এস আই পদটির দ্বায়ীত্বে থাকা বেশির ভাগ ব্যক্তিই এসেছেন পদ উন্নতি হয়ে, পুলিশ কনেষ্টবলে ভর্তি হয়ে এই পদে আসতে তাদের দীর্ঘ সময় লাগার কারনে তারা সার্জেন্ট দের সিনিয়র হয়ে ট্রাফিক বিভাগের অ লিখিত ক্যাশিয়াররে দ্বায়ীত্ব পালন করে থাকেন।

রাজশাহী মহানগর ট্রাফিক বিভাগের একটি সুত্র জানায় এখানে এমন সার্জেন্ট রয়েছেন যাদের ব্যাচের প্রায় সকলেই টি আই হয়ে বিভিন্ন স্থানে কর্মরত রয়েছেন কিন্তু তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় অনিয়মের অভিযোগ উঠার কারনে এখনো তারা পদ উন্নতি পাননি।

সুত্রটি আরো জানায় তারা পদ উন্নতি না পেলেও তাদের দাপটে ট্রাফিক বিভাগ আতংকিত হয়ে থাকে। গত ১২ ডিসেম্বর রাজশাহী মহানগরীর একজন সার্জেন্ট কাশিয়া ডাংগা এলাকায় ডিউটি চলা অবস্থায় অর্থ দাবী সহ অনিয়মের অভিযোগ উঠে তার উপর ঘটনার সত্যতা জানতে মিডিয়া কর্মীরা সেখানে গেলে তিনি কৌশলে সেখান থেকে সটকে পড়েন।

বিষয়টি ট্রাফিকের ডিসিকে অবহিত করলে তিনি খোজ নেওয়া হবে বলে জানান। আর এম পির একজন টি এস আই তিনি বিভিন্ন তদবির করে কতদিন আছেন তিনি নিজেও জানেন না, তার বিরুদ্ধে ট্রাক বাস সি এন জি মাইক্রো সহ ডজন খানেক অভিযোগ রয়েছে অবৈধ্ মাসোহারা উত্তোলনের।

অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে তিনি সকলকে ম্যানেজ করে চলেন। তবে অলৈকিক ক্ষমতাকেও দায়ী করছেন অনেকেই আর এই ক্ষমতার দাপটেই দীর্ঘ সময় একই স্থানে থেকে অনিয়মে জড়িয়ে পড়ছে বলেও এর সত্যতা মিলেছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button