জাতীয়

সীমান্তে হত্যা শূন্যে কোঠায় নামিয়ে আনতে বিজিবি-বিএসএফ একমত

চলমান ডেস্ক : সীমান্তে নিরস্ত্র বাংলাদেশি হত্যা শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনতে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতীয় বর্ডার সিকিউরিরিটি ফোর্স (বিএসএফ) একমত হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার যশোরে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) ১৩তম সীমান্ত সমন্বয় সম্মেলনে দুই দেশের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর প্রতিনিধিরা এ বিষয়ে একমত হয়ে যৌথ ঘোষণা দেন।

যশোর শহরের অভিজাত জাবির হোটেল ইন্টারন্যাশনালের কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বাংলাদেশের পক্ষে বিজিবির দক্ষিণ-পশ্চিমের রিজিয়নের কমান্ডার ও অতিরিক্ত মহাপরিচালক মো. জালাল গণি খান এনডিসির নেতৃত্বে ১৫ সদস্য অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে দক্ষিণ-পশ্চিম রিজিয়ন, যশোর রিজিয়ন ও রংপুর রিজিয়নের কমান্ডার, সেক্টর কমান্ডারগণ, বিজিবি সদর দপ্তর, পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে ভারতের পক্ষে বিএসএফ সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ারের আইজি শ্রী যোগেশ বাহাদুর খুরানিয়ার (আইপিএস) নেতৃত্বে ৮ সদস্য সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে বিএসএফের নর্থ বেঙ্গল ও গোহাটি ফ্রন্টিয়ারের আইজি, সংশ্লিষ্ট ফ্রন্টিয়ারের ডিআইজিগণ, ফ্রন্টিয়ার ও সেক্টর পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রথমদিনের সম্মেলন শেষে বিজিবি দক্ষিণ-পশ্চিম রিজিয়নের কমান্ডার ও অতিরিক্ত মহাপরিচালক মো. জালাল গণি খান (এনডিসি) ও বিএসএফ সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ারের আইজি শ্রী যোগেশ বাহাদুর খুরানিয়ার (আইপিএস) প্রেসকনফারেন্সে সাংবাদিকদের জানান, সম্মেলনে চোরাচালান, অস্ত্র ও গোলাবারুদ চোরাচালান, সীমান্তে নিরস্ত্র বাংলাদেশি নাগরিকদের গুলি, হত্যা, অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম, সীমান্ত উন্নয়ন, সীমান্ত এলাকায় কাটাতারের বেড়া নির্মাণ, নারী-শিশু পাচার রোধসহ বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

তিনদিনের সম্মেলন শেষে আগামী ৮ মার্চ ভারতীয় প্রতিনিধি দল তাদের দেশে ফিরে যাবেন।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button