বাঘারাজশাহী সংবাদ

বাঘায় ইউনিয়ন পরিষদের ভোটগ্রহণ চলছে

বাঘা প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় ৪ ইউনিয়ন পরিষদের ভোটগ্রহণ চলছে। আজ সোমবার (১৪ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। চলবে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। তবে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে দুপুর ১ টা পর্যন্ত
অপ্রিতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

বাঘা উপজেলা সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও নির্বাচন অফিসার মুজিবুল আলম বলেন, সুষ্ঠভাবে সকাল থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। কোন ধরনের অপ্রিতিকর ঘটনা ছাড়ায় চলছে ভোটগ্রহণ।  পুকুরিয়া ইউনিয়নের কিলোরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ১ হাজার ৬০২ ভোটার।

জানা গেছে, বাজুবাঘা, গড়গড়ি, পাকুড়িয়া, মনিগ্রাম এ চার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৫২ পদে ২৫২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এরমধ্যে চেয়ারম্যান পদে ১৯ জন, সংরক্ষিত পদে ৬৩ ও সাধারণ সদস্য পদে ১৭০ জনসহ মোট ২৫২ জন।

বাঘা উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, ৪টি ইউনিয়ন মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৩৬টি। গুরুত্বপূর্র্ণ কেন্দ্র ১৪টি, সাধারণ ২২টি, বুথ সংখ্যা ১৯৯টি। প্রিজাইডিং অফিসার ৩৬ জন, সহকারি পিজ্রাইডিং অফিসার ১৯৯ জন, গোলিং অফিসার ৩৯৮ জন, প্রতিটি কেন্দ্রে পুলিশ ও আনসার ১৮ জন, ১৬ জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটে, র‌্যাব ও বিজিবির ষ্টাইকিং ফোর্সের ৮টি মোবাইল টিম নিয়োগ করা হয়েছে।

এ দিকে ৪ ইউনিয়নে ১৯ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে বাজুবাঘা ইউনিয়নে আ.লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজলুর রহমান (নৌকা), বিএনপির স্থানীয়ভাবে মনোনীত প্রার্থী ফিরোজ আহম্মেদ (আনারস)। স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইফুল ইসলাম (ঘোড়া), হাসমত আলী (টেবিল ফ্যান), সাহার উদ্দিন ঝুন্টু (মোটরসাইকেল), আসলাম মালিথা (টেলিফোন), আসাদুজ্জামান (রজনীগন্ধা), জিয়াউর রহমান (ঢোল), এমএ মানিক (চশমা)। এ ইউনিয়নে মোট ভোটর সংখ্যা ১০ হাজার ৭৩৭ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটর ৫ হাজার ৩৩৬ ও নারী ভোটার ৫ হাজার ৪০২ জন।

গড়গড়ি ইউনিয়নে আ.লীগের মনোনীত চেয়াম্যান প্রার্থী রবিউল ইসলাম রবি (নৌকা), বিএনপির স্থানীয়ভাবে মনোনীত প্রার্থী মাসুদ করিম টিপু (টেবিল ফ্যান)। স্বতন্ত্র প্রার্থী জুলফিকার আলী (ঘোড়া), আবদুল্লা আল মাহমুদ (আনারস), জাহিদুল ইসলাম স্বপন (চশমা), আবুল কালাম আজাদ (মোটরসাইকেল)। এ ইউনিয়নে মোট ভোটর সংখ্যা ১২ হাজার ২১২ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটর ৬ হাজার ১৭৯ ও নারী ভোটার ৬ হাজার ৩৩ জন।

পাকুড়িয়া ইউনিয়নে আ.লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মেরাজুল ইসলাম সরকার (নৌকা) ও বিএনপির স্থানীয়ভাবে মনোনীত প্রার্থী ফকরুল হাসান বাবলু (আনারস)। এ ইউনিয়নে মোট ভোটর সংখ্যা ১৫ হাজার ৩৬৬ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটর ৭ হাজার ৭৯৫ ও নারী ভোটার ৭ হাজার ৫৭১ জন।

মনিগ্রাম ইউনিয়নে আ.লীগের মনোনীত প্রার্থী সাইফুল ইসলাম (নৌকা) ও বিএনপি’র স্থানীয়ভাবে মনোনীত প্রার্থী মুজিবুর রহমান জুয়েল (আনারস)। এ দুই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আ.লীগ ও বিএনপির মনোনীত প্রার্থীদের মধ্যে শুধু প্রতিদ্বন্দ্বীতা হবে। দলীয় ছাড়া অন্য কোন প্রার্থী এ দুই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নেই। এ ইউনিয়নে মোট ভোটর সংখ্যা ২৩ হাজার ৪০৩ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটর ১১ হাজার ৮৪৫ ও নারী ভোটার ১১ হাজার ৫৫৮ জন।

ফকরুল হাসান বাবলু বলেন, দুইটা কেন্দ্রে বিএনপির এজেন্ট নেই। উপজেলার কিশোরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও হযরত শাহ রহমাতুল্লাহ্ মার্কাজুল সুন্নাহ কওমি মাদাসা নেই বিএনপির নির্বাচনী এজেন্ট নেই।

 

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button