নওগাঁরাজশাহী সংবাদ

নওগাঁ সদর হাসপাতাল থেকে পাঁচ মাসের ১ বাচ্চা চুরি!

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে মুসা নামের ৫ মাসের এক বাচ্চা চুরির ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার বিকেল ৩টার দিকে হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর থেকে হাসপাতালে অভিভাবকদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

চুরি হয়ে যাওয়া বাচ্চাটির বাবার নাম ইসমাইল হোসেন এবং নওগাঁ সদর উপজেলার মঙ্গলপুর গ্রামে তাদের বাড়ি।

শিশুর অভিভাবক ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ডায়রিয়া জনিত সমস্যার কারণে গত ২ অক্টোবর হাসপাতালের নতুন ভবনের শিশু ওয়ার্ডে শিশু মুসাকে ভর্তি করানো হয়।

এসময় তার মা বৃষ্টি ও দাদি সাথে থাকতেন।

শিশু কিছুটা সুস্থ হয়ে উঠায় তার মা তাকে নিয়ে ওয়ার্ডের বাহিরে এসে পায়চারি করছিলেন।

তার পাশে এক অপরচিত মহিলাও ঘুরাঘুরি করছিল।

ওই মহিলার হাতে শিশু মুসাকে দিয়ে ওয়ার্ডের ভিতরে বাচ্চার প্যান্ট নিতে যান।

ওই মহিলা এক সময় কৌশলে বাচ্চাকে কোলে নিয়ে বাহিরে চলে যান।

এদিকে শিশুটির দাদিও হাসপাতালের বাহিরে ঔষুদের দোকানে ঔষুধ নিতে যান।

শিশুটির মা ওয়ার্ড থেকে ফিরে এসে দেখেন ওই মহিলা সেখানে আর নাই।

হাসপাতলের বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

এসময় শিশুটির দাদি ফিরে আসলে কারও কাছে সন্তান না থাকায় কান্না ও হৈ চৈ শুরু হয়।

এরপর হাসপাতালের কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবগত করা হয়।

ঘটনার পর থেকে হাসপাতালে অভিভাবকরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।

সদর হাসপতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডা. মুক্তার হোসেন বলেন, সিসি টিভির ভিডিও ফুটেজ থেকে দেখা যায় একটি বোরখা পরিহিত নারী ওই শিশুটিকে কোলে নিয়ে হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যায়। এরপর ব্যাটারি চালিত অটোচার্জার যোগে হাসপাতাল থেকে তড়িঘড়ি করে যায়।

বিষয়টি থানায় অবগত করা হয়েছে।

নওগাঁ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, শিশু চুরি বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ থানায় একটি সাধারন ডায়েরি (জিডি) করেছেন। শিশুটি উদ্ধারে ইতোমধ্যে অভিযান শুরু হয়েছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button