নওগাঁরাজশাহী সংবাদ

নওগাঁর পত্নীতলায় এক আজব ব্রিজ

বাবা চেয়ারম্যান, ছেলে ঠিকাদার

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
নওগাঁর পত্নীতলায় এক আজব ফুটব্রিজের খোঁজ পাওয়া গেছে। এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের টাকায় একটি ডোবার মধ্যে নির্মিত ব্রিজটির দুই পাশে কোনো রাস্তা নেই। আছে শুধু সফলের ক্ষেত। ব্রিজটি কোনো কাজে আসছে না।
এ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। তাদের মতে, মনগড়া প্রকল্পে সরকারি টাকা ব্যয় করে এ ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়ন স্থানীয় প্রশাসনের দায়িত্বহীনতা ছাড়া আর কিছুই নয়।
সরেজমিন দেখা যায়, নজিপুর-ধামইরহাট আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে পাটিচড়া ইউনিয়নের বিজিবি ক্যাম্পের অদূরে ফাঁকা স্থানে ডোবার মধ্যে একটি ছোট্ট ফুটব্রিজ দাঁড়িয়ে আছে। ব্রিজের দুই পাশে নেই চলাচলের কোনো রাস্তা। ব্রিজে ওঠারও কোনো ব্যবস্থা নেই।
নিয়ম অনুযায়ী মানুষের চলাচলের সুবিধার্থে ফুটব্রিজ নির্মাণ করে দুই পাশে মাটি দিয়ে ভরাট করার কথা থাকলেও এ ক্ষেত্রে তা করা হয়নি।
২০১৭-২০১৮ অর্থবছরে এক লাখ দুই হাজার ৩৭ টাকা ব্যয়ে নির্মিত ব্রিজটি এখন মুখথুবড়ে পড়ে আছে। যেন সরকারি মাল দরিয়ামে ঢাল। নিয়ম অনুযায়ী টেন্ডার দিয়ে ফুটব্রিজের কাজ করার কথা থাকলেও পাটিচরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কৌশলে নিজের ছেলে মো. মশিউর রহমানকে কাজ পাইয়ে দেন। এরপর ঠিকাদার ছেলেকে দিয়ে নামমাত্র কাজ করে বিল উত্তোলন করে নেন।
জানতে চাইলে ঠিকাদার মশিউর রহমান বলেন, ‘কিছু দিনের মধ্যেই ফুটব্রিজের দুই পাশে মাটি ভরাটের কাজ শুরু হবে।’ এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. লিটন সরকার বলেন, ‘বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব।’

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button