রাজশাহী সংবাদ

ত্রাণ পেল পদ্মার চরের পানিবন্দি ১৫০ পরিবার

নিজস্ব প্রতিবেদক,রাজশাহীঃ
উজানের নেমে আসা পানিতে ছুঁই-ছুঁই রাজশাহীর পদ্মা। নদীতে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় প্লাবিত হয়েছে জেলার বাঘা উপজেলার চরগুলো। ১৫টি চরের প্রায় ১ হাজার ৮০০ পরিবার গত এক সপ্তাহ যাবত পানিবন্দি। বিষয়টি জেলা ও উপজেলা প্রশাসন অবগত থাকার পরও সেখানে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়নি।

গণমাধ্যমে এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশের পর অবশেষে শনিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে উপজেলা প্রশাসন। বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাহীন রেজা, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ফরিদুল ইসলাম, চকরাজাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আজিজুল আযম চরগুলো ঘুরে দেখেন।

পরে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত ১৫০টি পরিবারের মাঝে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন। ত্রাণের সামগ্রীর মধ্যে ছিল- চাল, ডাল, সয়াবিন তেল, চিনি, দুধ, চিড়া, দিয়াশলাই ও মোমবাতি।

ত্রাণ বিতরণকালে ইউএনও শাহীন রেজা বলেন, ‘আপনারা নিজেদের অসহায় ভাববেন না। আমরা সব সময় আপনাদের পাশে আছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও আপনাদের পাশে আছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আপনাদের দুঃখ-দুর্দশার কথা চিন্তা করে ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসক এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে বিষয়টি অবগত করেছি। এই মুহূর্তে যারা ঘর ভেঙে অন্যত্র সরিয়ে নিয়েছেন, কেবল তাদের মাঝে ত্রাণ দেওয়া হচ্ছে। আগামী দু’একদিনের মধ্যে সকল বন্যার্তদের ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হবে।’

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button