রাজশাহী সংবাদ

রাবি শিক্ষার্থীদের মারধর ও শ্লীলতাহানি, গ্রেফতার ২

রাবি প্রতিনিধিঃ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীদের মারধর ও ছাত্রীর শ্লীলতাহানির মামলায় স্থানীয় দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বিনোদপুর এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করে মতিহার থানা পুলিশ। মামলাটির বাদী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (আইবিএ) এর প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী শিহাব আল কুরাইশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- রবিউল ইসলাম রবি ও সিরাজুল ইসলাম। তাদের বিরুদ্ধে এর আগেও মাদকসহ একাধিক মামলা ছিলো বলে থানা সূত্রে জানা যায়। রবিবার রাত সোয়া ১১টার দিকে মামলার বাদী শিহাব আল কুরাইশ ও তার ৫-৬ জন সহপাঠী বিনোদপুর বাজারের রিয়াদ হোটেলের পাশে চায়ের দোকানে আড্ডা দিচ্ছিলেন। এ সময় শিহাবের দুই বান্ধবীকে উত্যক্ত ও অশালীন অঙ্গভঙ্গি প্রদর্শন করে কয়েকজন স্থানীয় বখাটে। শিহাব ও তার অন্য বন্ধুরা এর প্রতিবাদ করলে বখাটেরা তাদের মারধর করে। মারধরে নাঈম নামের এক শিক্ষার্থীর (শিহাবের সহপাঠী) কানে জখম হয় ও শোভন নামের আরেকজনকে ক্রিকেটের স্ট্যাম্প দিয়ে মাথায় আঘাত করে বখাটেরা। পরে তারা সেখানে থাকা দুই ছাত্রীর ওড়না খুলে নেয় এবং শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে। সোমবার শিহাব বাদী হয়ে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে নগরীর মতিহার থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলায় এজাহার ভুক্ত আসামীরা হলেন- রবিউল ইসলাম রবি ও তার ভাই খলিল। এছাড়া অন্য আসামীরা হলো- শান্ত, সিরাজুল, ঊষা, শিপন, জনি (১) ও জনি (২)। তারা বিনোদপুর সংলগ্ন বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা।

জানতে চাইলে মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান জানান, মামলার পরেই অভিযান চালিয়ে এজাহার ভুক্ত দুই আসামীকে গ্রেফতার করা হয়। দুজনের বিরুদ্ধেই মাদকসহ একাধিক মামলা রয়েছে। এছাড়াও পুলিশ অন্য আসামীদেরও ধরতে অভিযান চালাচ্ছে বলে জানান তিনি।

এদিকে, শিক্ষার্থীদের মারধরের ঘটনায় বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে মানববন্ধন করে শিক্ষার্থীরা।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button