রাজশাহী সংবাদ

রাজশাহী নগরীর শ্রীরামপুর টি-বাঁধ এলাকা পরিদর্শন সাংসদ বাদশার

নিজস্ব প্রতিবেদক: শীতের সকালে সংসদ সদস্যকে এলাকায় দেখে চমকে উঠলেন রাজশাহী মহানগরীর শ্রীরামপুরের বাসিন্দারা। তাদের নিয়েই এলাকার নদীভাঙন পরিস্থিতি ঘুরে ঘুরে দেখলেন রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা।

শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা প্রথমেই শ্রীরামপুর টি-বাঁধ সংলগ্ন এলাকার নদীভাঙন পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন। এলাকার বাসিন্দা আশোক রায় এবং তার ভাই প্রদীপ রায় ভাঙন দেখাতে সংসদ সদস্যকে তাদের বাড়ির ভেতরে নিয়ে যান। গেল ভরা মৌসুম শেষে তাদের বাড়ির একটা অংশ ভেঙে গেছে।

দুই ভাই সংসদ সদস্যকে বললেন, এবার ভাঙন ঠেকানোর উদ্যোগ না নিলে তাদের পুরো বাড়িটাই পদ্মায় বিলীন হয়ে যাবে। এ সময় সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা এ ব্যাপারে যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে বলে তাদের আশ্বস্ত করেন।

আশোক রায় ও প্রদীপ রায়ের বাড়ি থেকে বের হলেই এলাকার নারীরা ঘিরে ধরেন সংসদ সদস্য বাদশাকে। তারা দাবি জানান, গ্রামের মতো শহরের বিধবা নারীরাও যেন বিধবা ভাতা পান। এ সময় ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, এই বিষয়টা নিয়ে তিনি সংসদে একাধিকবার কথা বলেছেন। কারণ, শহরের নারীরাও বিধবা হন। তাদেরও ভাতার প্রয়োজন রয়েছে। সামনের সংসদ অধিবেশনেও তিনি এ ব্যাপারে কথা বলবেন। তিনি আশা করেন, সরকার তার এই দাবি মেনে নিয়ে শহরেও বিধবা ভাতা চালু করবে।

পরে সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা পুরো এলাকার রাস্তা-ঘাট ঘুরে দেখেন। পরিদর্শন করেন চলমান উন্নয়ন কর্মকাণ্ডও। এ সময় তার সঙ্গে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও রাজশাহী মহানগরের সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু এবং নগরীর সাত নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতিও উপস্থিত ছিলেন।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button