নাটোর

জীবিত ছেলে বাবাকে ভোট দিতে গিয়ে হলো মৃত

নাটোর প্রতিনিধিঃ

অনেক আশা নিয়ে ঢাকা থেকে বাবাকে ভোট দিতে এসেছিলেন নাটোরেরনলডাঙ্গা পৌরসভার বাসিন্দা মানিক ইসলাম। কিন্তু ভোট দেয়া হলো না। ভোটার স্মার্ট আইডি কার্ড থাকলেও ভোটার তালিকায় তার নাম ‘মৃত’ দেখানোয় কেন্দ্রে গিয়ে ভোট না দিয়ে ফিরতে হয়েছে তাকে।

শনিবার  দুপুর ১২টার দিকে নলডাঙ্গা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী মানিক ইসলাম নলডাঙ্গা পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী বাবলু সরদারের ছেলে।

মানিক ইসলাম অভিযোগ করে জানান, বাবাকে ভোট দেয়ার জন্য কর্মস্থল ঢাকা থেকে শুক্রবার রাতে বাড়িতে এসেছেন। দুপুরের দিকে স্মার্ট কার্ড নিয়ে ভোট দিতে নলডাঙ্গা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে যান। এ সময় স্মার্ট আইডি কার্ড থাকলেও ভোটার তালিকায় তার নাম না থাকায় ওই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার তাকে ফিরিয়ে দেন। পরে উপজেলা নির্বাচন অফিসে গিয়ে স্মার্ট কার্ডটি দেখিয়ে সমস্যার কথা জানালে, তারা মেশিনে পরীক্ষার পর জানান তিনি মৃত। এই অবস্থায় তিনি তার বাবাকে ভোট দিতে না পারার আক্ষেপ করেন।

নলডাঙ্গা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার কিশোয়ার জানান, ওই ব্যক্তির স্মার্ট কার্ডটি থাকলেও ভোটার তালিকায় তার নাম নেই। এ জন্য তার ভোট দেয়ারও কোনো সুযোগ নেই। তাই তাকে উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে সংশোধন বা কাগজ নিয়ে ভোটকেন্দ্রে আসার পরামর্শ দেয়া হয়।

নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাচন অফিসার সাইফুল ইসলাম জানান, ভোটার আইডি কার্ড থাকলেও তালিকায় নাম না থাকলে তার ভোট দেয়ার কোনো সুযোগ নেই। তবে ভোটের পর কার্ডটি সংশোধন করে নেয়া যাবে।

তিনি আরো জানান, ভোটার তালিকা প্রকাশের পর ওই তালিকায় তার নাম আছে কিনা তা আগেই যাচাই করা উচিত ছিল। কিন্তু তিনি সেটা করেননি। ভুলবশত তার নামটি মৃতের তালিকায় যেতে পারে, তা সময়মতো সংশোধন করা যাবে বলে জানান তিনি।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button