রাজশাহী সংবাদ

রাজশাহী পাটকল শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ালেন সাংসদ বাদশা

নিজস্ব প্রতিবেদক : বেতন ভাতা পরিশোধ ও মজুরি কমিশন বাস্তবায়নসহ ১১ দফা দাবিতে রাজশাহী পাটকল শ্রমিকদের শুরু করা  আমরণ অনশন চলছে।

সোমবার সকালে রাজশাহী জুটমিলের আন্দোলনরত শ্রমিকদের সাথে একাত্মতা ঘোষনা করে বক্তব্য দেন রাজশাহী সদর আসনের সাংসদ ও ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা। এসময় তিনি শ্রমিকদের দাবি দাওয়া মেনে নিতে সরকারকে অনুরোধ করেন। তিনি আগামী সংসদ অধিবেশনে শ্রমিকদের দাবি দাওয়া নিয়ে কথা বলবেন বলেও শ্রমিকদের আশ্বাস দেন।

রাজশাহী জুট মিলসের সিবিএ সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি জিল্লুর রহমান জানান, সরকারি-বেসরকারি অংশীদারীর সিদ্ধান্ত বাতিল, কাঁচা পাট কিনতে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ, অবসরে যাওয়া শ্রমিকদের বকেয়া পরিশোধসহ ১১ দফা দাবি না মানা পর্যন্ত তাদের এ কর্মসূচি চলবে।

তিনি বলেন, গত ১১ ডিসেম্বর থেকে আমরণ অনশন শুরু করা হয়েছিল। পরে দাবি মানার আশ্বাসে তা স্থগিত করা হয়। কিন্তু এখনো সেই দাবি মানার কোন প্রক্রিয়া শুরু হয়নি। ফলে বাধ্য হয়ে তারা ফের আমরণ অনশনে যেতে বাধ্য হয়েছেন।       

আমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করছেন, রাজশাহীর পাটকল শ্রমিকরা। আন্দোলনের দ্বিতীয় দিনে সোমবার পাটকল শ্রমিকদের সাথে সংহতি প্রকাশ করছেন  রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা।

এর আগে গতকাল রোববার রাতভর মিলের মূল ফটকে অবস্থানের পর সোমবার সকাল থেকে তারা নানান দাবি নিয়ে আবারও বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন।

রাজশাহী পাটকল সিবিএ-নন সিবিএ সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি জিল্লুর রহমান জানান, তাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তাদের পক্ষে আর ঘরে ফেরা সম্ভব নয়।

কেন্দ্রীয়ভাবে বৈঠক ফলপ্রসূ না হওয়ায় গত ১০ ডিসেম্বর দুপুর থেকে আন্দোলন শুরু করেন পাটকল শ্রমিকরা। পরে তাদের দাবি মেনে নেওয়ার সরকারি আশ্বাসে গত ১৪ ডিসেম্বর কেন্দ্রীয়ভাবে কর্মসূচি স্থগিত করা হয়।

তাদের অভিযোগ, মজুরি কমিশনের দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হলেও এখনো কার্যকর হয়নি। দাবি পূরণ না হওয়ায় গতকাল রোববার থেকে আমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করছেন তারা। ঘোষিত ১১ দফা দাবি আদায়ে এবার শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

রাজশাহী পাটকলের মূল ফটকের সামনে কাঁথা-বালিশ নিয়ে অনশন কর্মসূচি পালন করছেন পাটকল শ্রমিকরা। তবে শীতের কারণে পাটকল শ্রমিকদের অনেকেই ধীরে ধীরে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন বলেও জানান এই শ্রমিক নেতা।

এদিকে, মজুরি কমিশন বাস্তবায়নসহ ১১ দফা দাবিতে দু’সপ্তাহ পর আবারও আন্দোলনে নেমেছেন রাজশাহীর পাটকল শ্রমিকরা। গতকাল রোববার বেলা ৩টার পর থেকে পাটকল ফটকের সামনে তারা জড়ো হন। বর্তমানে সেখানে বসেই তারা আন্দোলন করছেন।

জাতীয় মজুরি কমিশন বাস্তবায়ন, সরকারি- বেসরকারি অংশীদারি (পিপিপি) সিদ্ধান্ত বাতিল, অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে এ কর্মসূচি পালন করছেন পাটকল শ্রমিকরা।       

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button