বাঘারাজশাহী সংবাদ

দুই বাংলা‌দেশী‌কে আট‌কের ঘটনায় বিজিবির পতাকা  বৈঠকের আমন্ত্র‌নে  সাড়া দেয়‌নি বিএসএফ.

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর বাঘা উপ‌জেলার মীরগঞ্জ বিও‌পির   সীমান্ত এলাকা থে‌কে বাংলাদেশী দুই নাগ‌রিক কে ধরে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এর পতাকা বৈঠকের আমন্ত্র‌নে সাড়া দেয়নি ভারতের বিএসএফ।

রোববার (২৪-ন‌ভেম্বর) বাংলাদেশ সময় বেলা ২টায় বাঘা উপজেলার মীরগঞ্জ  বিও‌পি এলাকায় পতাকা বৈঠকের আমন্ত্রন জানানো হয় ।গত শনিবার (২৩-ন‌ভেম্বর) ভারতের সীমানায় অনুপ্রবেশের অভিযোগে ওই দেশের বিএসএফ কর্তৃক দুই বাংলাদেশী নাগরিককে আটকের পর ভারতের সাগরপাড়া বিএসএফ ক্যাম্পের কোম্পানি কমন্ডারকে চিঠি দিয়ে আমন্ত্রন জানান,রাজশাহী ব্যাটালিয়ন (১ বিজিবি), এর আলাইপুর বিজিবি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার আবু তালেব। তিনি জানান, বৈঠকে বসার সন্মতি দিয়েছিল তারা। কিন্তু বিকেল ৪টা পর্যন্ত অপেক্ষা করেও তাদের সাড়া মেলেনি।

বিজিবি সুত্রে জানা যায়, মীরগঞ্জ সীমান্ত এলাকায় কাশবনের ঘাস কাটতে গিয়ে ভূল বশতঃ ভারতের সীমানায় অনুপ্রবেশ করে দুই বাংলাদেশী নাগরিক।

শনিবার দুৃপুরে তাদের আটক করে ভারতের সীমান্ত এলাকার বিএসএফ। পরে তাদের বিরুদ্ধে ভারতের জলংগি থানায় মামলা দায়ের করা হয়। আটককৃত দুইজন হলেন, উপজেলার মীরগঞ্জ ভানুকর গ্রামের তছির উদ্দিনের ছেলে এরাজুল ইসলাম (৫০),একই গ্রামের  মৃত মিনু মন্ডলের ছেলে সুমন আলী (৩৫)। এসময় পালিয়ে আসে শাজাহান আলী সহ আরো৪/৫জন।

তিনি জানান,কাশবনে ঘাস কাটার সময় ভারতের বিএসএফ পেছন থেকে এসে দুইজনকে আটক করে। এসময় তারা কৌশলে পালিয়ে আসে।

সুবেদার আবু তালেব বলেন, তাদের আটকের পর রাত ১০ টা পর্যন্ত অফিসিয়ালি বিজিবিকে কিছুই জানায়নি বিএসএফ। পরে তাদের পরিবারের সদস্যরা তুলে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেন। এরপর বিজিবি গোয়েন্দা মারফত জানতে পারেন তাদেরকে ভারতের জলঙ্গি থানায় সোর্পদ করা হয়েছে। বিএসএফের উচিত ছিলো আমাদেরকে জানানোর।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button