সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

প্রতিবেশীর খাটের নিচে মিলল শিশুর বস্তাবন্দী মরদেহ

সংবাদ চলমান ডেস্ক: সাভারে নিখোঁজের একদিন পর এক শিশুর বস্তাবন্দী মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় এক দম্পতিকে আটক করেছে পুলিশ।
সংবাদ চলমান ডেস্ক:
আটকরা হলেন- জামালপুরের সরিষাবাড়ীর কুটিপাড়া গ্রামের মোকসেদুল ইসলাম ও সোনালী বেগম।

শুক্রবার রাতে সাভারের হেমায়েতপুরের জয়নাবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নাফিজা ওই এলাকার পোশাক শ্রমিক ফাতেমা বেগমের মেয়ে।

হেমায়েতপুর চামড়া শিল্পনগরী পুলিশ ফাঁড়ির এসআই এনামুল হক জানান, নাফিজাকে নিয়ে ওই এলাকার হাজী জাহাঙ্গীরের বাড়ির পাঁচ তলার একটি ফ্লাটে ভাড়া থাকেন। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে নাফিজা আরবি পড়তে বের হয়ে নিখোঁজ হয়। অনেক খোঁজখুজির পর মেয়েকে না পেয়ে শুক্রবার সকালে সাভার থানায় অভিযোগ করেন ফাতেমা। পরে অভিযানে নামে পুলিশ। এক পর্যায়ে রাতে ফাতেমার পাশের ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালিয়ে খাটের নিচ থেকে নাফিজার বস্তাবন্দী মরদেহ পাওয়া যায়। পরে ফ্ল্যাটের ভাড়াটিয়া দম্পতিকে আটক করা হয়।

এসআই এনামুল আরো জানান, আটকরা জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন। হত্যাকারী হিসেবে একে অপরকে দায়ী করছেন। তারা শিশুটিকে হত্যার পর প্রথমে ফ্রিজের ভেতর ঢুকিয়ে রাখে। এরপর মরদে গুমের উদ্দেশ্যে বস্তায় ভরে খাটের নিচে লুকিয়ে রাখেন। তবে হত্যার কারণ জানা যায়নি।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button