সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

চুলা কাটা নিয়ে ঝগড়া ছুরিকাঘাতে কাঠ ব্যবসায়ী খুন

বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ায় দিনে-দুপুরে এক যুবলীগ নেতার ছুরিকাঘাতে শাহেদ (৩৫) নামের এক কাঠ ব্যবসায়ী খুন হয়েছেন। শুক্রবার দুপুরে বগুড়া সদরের নুনগোলা ঈদগাহ মাঠ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শাহেদ বগুড়া সদরের পূর্ব আশোকোলা গ্রামের তোজাম্মেল হোসেনের ছেলে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা রুবেল হোসাইনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রুবেল বগুড়া সদরের নিশিন্দারা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি।

স্থানীয়রা জানান, দুপুরে সদর উপজেলার ন্যাংড়ার বাজারে সেলুনে চুল কাটার সিরিয়াল দেওয়া নিয়ে দুই যুবকের মধ্যে ঝগড়া হয়। এদের মধ্যে এক যুবক যুবলীগ নেতা রুবেলকে ফোন করে ডেকে আনলে সে সেলুনের কর্মচারীদের ওপর চড়াও হয়। এসময় শাহেদের ছোট ভাই জাফরুল রুবেলকে বাঁধা দিলে তাকে মারধর করা হয়। জাফরুল বাড়ি গিয়ে বড় ভাই শাহেদকে ঘটনাটি জানায়।

শাহেদ ঘটনা শুনে ন্যাংড়ার বাজারের দিকে আসতে থাকে। পথে নুনগোলা ঈদগাহ মাঠের কাছে রুবেল ও তার সহযোগীদের সঙ্গে শাহেদের দেখা হয়। ছোটভাই জাফরুলকে মারধরের কারণ জানতে চাইলে দুইজনের মধ্যে তর্ক-বিতর্ক শুরু হয়।

এক পর্যায়ে রুবেল ও তার সহযোগীরা শাহেদের বুকে ও পিঠে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় আশেপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর তিনটার দিকে মারা যান শাহেদ।

বগুড়া সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মঞ্জুরুল হক ভুঞা বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শাহেদকে খুন করা হয়। ঘটনার পর অভিযুক্ত রুবেলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button