সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

আহমদিয়া মুসলিম জামাত ও মাদরাসা ছাত্রদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

সংবাদ চলমান ডেস্ক:  ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কান্দিপাড়ায় আহমদিয়া মুসলিম জামাতেরকর্মী সমর্থক ও স্থানীয় মাদরাসার ছাত্রদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় উভয় পক্ষের প্রচুর ইটপাটকেল নিক্ষেপে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, সন্ধ্যায় আহমদিয়াদের কান্দিপাড়ার উপাসনালয়ে শিশু সংগঠন আতফালুল আহমদিয়ার উদ্যোগে শিক্ষামূলক পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান ও দোয়া মাহফিল চলছিল। খন্দকার মোশতাক আহমেদের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন লন্ডন প্রবাসী আহমদিয়া নেতা ফিরোজ আলম। উপস্থিত ছিলেন এখতিয়ার উদ্দিন শুভ প্রমুখ। সভা শুরুর পর পূর্ব কান্দিপাড়া থেকে বেশ কয়েকজন সেখানে হাজির হলে তাদের সঙ্গে বাদানুবাদ হয়। এ থেকেই এক পর্যায়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় দুপক্ষ প্রচুর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। পরে সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

স্থানীয় আহমদিয়া নেতা এখতিয়ার উদ্দিন শুভ জানান, অতর্কিত অনুষ্ঠানে, উপাসনালয়ে, বাড়িঘর ও তাদের ওপর হামলা চালায় স্থানীয় মাদরাসার ছাত্ররা।

এদিকে জামেয়া ইসলামিয়া ইউনিছিয়া মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা আব্দুর রহিম কাসেমী জানান, স্থানীয় শিমরাইল কান্দি মসজিদ দখল করার জন্য লন্ডন থেকে আসা আহমদিয়া নেতার নেতৃত্বে একটি সভা চলছিল। হামলাকারীরা কান্দিপাড়া খতমে নবুওয়াত মসজিদটি দখল করার চেষ্টা করে। তারা স্থানীয় মুসল্লী ও মাদরাসা ছাত্রদের ওপর হামলা চালায়। হামলায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জামিয়া ইউনিছিয়ার কিতাব বিভাগের ছাত্র সফিউল্লাহসহ বেশ কয়েকজন গুরুত্বর আহত হয়। তিনি দ্রুত হামলাকারীদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার দাবি জানান।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন জানান, দুপক্ষের মধ্যে উত্তেজনা ছিল। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামসুজ্জামান জানান, পুরো পরিস্থিতি প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button