বাঘারাজশাহী সংবাদ

রাজশাহীর আড়ানীতে শহীদের পক্ষে গনজোয়ার-প্রার্থীসহ ৬শ জনের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

কনকনে শীতে থমথমে অবস্থার মধ্যে দিন ঘুনিয়ে আসছে রাজশাহীর বাঘার আড়ানী পৌরসভা নির্বাচন।আর এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভাঙচুর অগ্নিসংযোগের ঘটনাও ঘটেছে বুধবার রাতে।

এই ঘটনায় বিদ্রোহী প্রার্থী মেয়র মুক্তার আলীকে প্রধান আসামি করে বিস্ফোরক আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) ‍দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম। তিনি জানান, বুধবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহব্বায়ক মতিউর রহমান মতি বাদি হয়ে বাঘা থানায় বিস্ফোরক আইনে এই মামলাটি দায়ের করেন।

তিনি আরও জানান, বিস্ফোরক আইনে করা মামলাটিতে বিদ্রোহী প্রার্থী মেয়র মুক্তার আলীকে প্রধান আসামি করে মামলা করা হয়েছ। এছাড়া এই মামলায় ৫০ জনের নাম উল্ল্যখ করে অজ্ঞাত আরও অন্তত ৫শ থেকে ৬শ জনকে আসামি করা হয়েছে। এই মামলায় আড়ানীর সাহাপুর এলাকার সাহাবাজ আলীর ছেলে মিলনকে (৩০) আটক করে পুলিশ। স্থানিয়রা বলছেন  ১৬ তারিখের নির্বাচনে আরো বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে।

তবে আইন প্রয়োগ কারি সংস্থার একাধিক সদস্য সংবাদ চলমান কে বলেন যেহেতু এই নির্বাচনী এলাকা চিহ্নিত করা হয়েছে তাই এখানে যথেষ্ট পরিমান নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। তিনি আরো বলেন এই নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী স্থানিয় ভাবে ক্ষমতা শালী হওয়ার কারনেই দফায় দফায় সংঘর্ষ বাধছে। বিদ্রোহী প্রার্থী মুক্তার আলীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধি মালা না মানা সহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে।

মুক্তার আলী আড়ানী এলাকার মানুষের নিকট অনেকটাই আতংক। তবে নৌকার বাহিরে যারা এবার ভোটে নেমেছে তাদের বিরুদ্ধে দলীয় অনেক সিদ্ধান্ত অফেক্ষা করছে বলে জানিয়েছেন রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগের একজন সিনিয়র পদধারি ব্যক্তি। তিনি বলেন ক্ষমতা দেখিয়ে যারা নৌকার প্রার্থীকে বিতর্কিত করতে চাইছে তারা অবশ্যই আওয়ামীলীগের ভালো চায়না। আর যারা দলের ভেতর থেকে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাদের দলে কোন প্রয়োজন নেই।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button