পুঠিয়ারাজশাহী সংবাদ

রাজশাহীর পুঠিয়ায় তরুণীর বিষপানে রহস্যজনক মৃত্যু

পুঠিয়া প্রতিনিধিঃ  রাজশাহীর পুঠিয়ায় রুমিয়া খাতুন (১৯) নামের এক তরুণীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তার মরদেহের কাছে বিষ জাতীয় পদার্থের একটি খালি বোতল পেয়ে ধারনা করা হচ্ছে মেয়েটি বিষ পান করে আত্মহত্যা করেছে। তবে কি কারনে আত্মহত্যা করেছে সে ব্যপারে নিশ্চিতভাবে কিছুই জানা যায়নি। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রামেক হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে আহত অবস্থায় পুঠিয়া উপজেলা ভুমি অফিসের পাশ থেকে কয়েকজন যুবক তাকে উদ্ধার করে পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়। রুমিয়া খাতুন (১৯) নাটোর জেলার বাগাতিপাড়া উপজেলার জামনগর ইউনিয়নের রওশনগিরী পাড়া গ্রামের মৃত নুর ইসলামের মেয়ে। তবে সে তার নানী ছুরাতন বেওয়ার কাছে বড় হয়েছে। মৃত্যুর আগে তার কাছেই থাকতেন। তবে গত তিনদিন থেকে তার নানীর কাছেও রুমিয়ার কোন খোঁজ ছিলোনা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুর প্রায় ১ টা থেকে দেড়টার দিকে রাজবাড়ি এলাকায় অবস্থিত ভুমি অফিসের পেছনে একটি ব্রেঞ্চের উপর আহত হয়ে পড়ে থাকা অবস্থায় রাজবাড়ি পরিদর্শনে আসা কয়েকজন বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া দর্শনার্থী যুবক অজ্ঞাত তরুণীর উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। তবে উপস্থিত কেও তাকে চিনতে পারেনি। স্থানীয়রা আরো জানান, হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর অজ্ঞাত তরুনীর মৃত্যুর খবর শুনে স্থানীয়দের মধ্যে ব্যাপক আতংক বিরাজ করছে।

হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে, উজ্জল ও মাইনুল নামের দু’জন বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া যুবক অজ্ঞাত তরুণীর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসে। তবে সেই শিক্ষার্থীরা তরুণীর নাম পরিচয় জানাতে পারেনি। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেয়েটি হাসপাতালে মারা গেছে। ধারনা করা হচ্ছে বিষ জাতীয় কোন পদার্থ পান করায় তার মৃত্যু হয়েছে। থানা পুলিশ জানায়, মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করে তার মরহেদের ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। তার ভ্যানিটি ব্যাগে তার জন্মনিবন্ধনের কাগজ ছিলো সেখান থেকে তার পরিচয় পাওয়া যায়। এ ব্যপারে থানায় তার নানী বাদী হয়ে একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেছে।

সুত্র আরো জানায়, তবে তার নানীর সাথে কথা বলে পুলিশ জানতে পেরেছে, মেয়েটি মানষিক প্রতিবন্ধী হওয়ায় তার প্রথম স্বামীর সাথে তার তালাক হয়। তার পর থেকে সে বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়াতো। গত তিনদিন আগে সে বাড়ি থেকে বের হয় এ তিনদিন তার কোন খোঁজ ছিলোনা।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম জানান, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে সে বিষ পান করে আত্মহত্যা করেছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে আরো নিশ্চিতভাবে তার মৃত্যুর কারন জানা যাবে। তবে কি কারনে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে সে ব্যপারে নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি। তদন্ত চলছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button