সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

সাংবাদিকদের প্রানের সংগঠন হয়ে আলোড়ন দেশ বিদেশে

বিশেষ প্রতিনিধি : কোন সাংবাদিক হয়রানি হলেই তার পাশে এসে প্রতিবাদের ঝড় তুলে, কোন সাংবাদিকের রহস্যজনক মৃত্যু হলে সেই মৃত্যুর কারন ও সঠিক তদন্তের দাবী এনে দেশে ঝড় তুলে, কোন সাংবাদিকের স্বাভাবিক মৃত্যু হলে শোকের মাতম নিয়ে আসে, আর সেই সংগঠনের নাম বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম। হাটি হাটি পা পা করে কোন রাজনৈতিক নেতার ছোবলের লালসার শিকার না হয়ে আজো দেশে এবং দেশের বাইরে এই সংগঠনের কেউ রয়েছেন সাংবাদিকের পাশে দাড়ানোর জন্য। কথাটি অবাক লাগার মত হলেও সত্য যে মাত্র একজন ব্যক্তির চেস্টায় আজ এই সংগঠনের সুনাম অর্জন হতে চলেছে যার নাম অনেকেই এরই মাঝে শুনেছেন তিনি- আহমেদ আবু জাফর। ঢাকার পল্টনের কোন এক জায়গা থেকে ছোট্র পরিসরে এই সংগঠন টির যাত্রা শুরু হয়, কিন্তু এখন দেশের সকল জেলা এমন কি উপজেলায় রয়েছে এই( বি এম এস এফ) এর কর্মী এদের অনেকেই আহমেদ আবু জাফর কে চিনেনা – চিনে ( বি এম এস এফ) কে, হয়ত এটিই চেয়েছিলেন তিনি।

দেখেছি জাতীয় প্রেস ক্লাবের সেক্রেটারি ফরিদা আপাকে এই সংগঠনের প্রতিফল নিয়ে আলোচনা করতে। হয়ত দুই একজন ভুই ফোঁড় সাংবাদিক এই সংগঠনে ঢুকে পড়েছে সেটি অ স্বাভাবিক কিছু নয়, খুব তাড়াতাড়ি এরা হারিয়ে ও যাবে এটি নিয়ে হতাশ হবার কিছুই নেই। অনেক সুনাম ধন্য চ্যানেলের সাংবাদিক এই সংগঠন নিয়ে বিরুপ মন্তব্য করেছেন তাতেও হতাশ হননি এই সংগঠনের কেউ – কারন এই সংগঠন কারো প্রতি দ্বন্দি নয়। এই সগঠন শুধু সাংবাদিকদের জন্য ঐক্য বদ্ধ হওয়ার একটি মাধ্যম মাত্র। এই সংগঠনের একজন সদস্য সংবাদ চলমাম কে বলেন আমাদের উদ্যেশ্য গুলো কেউ মনযোগ সহকারে দেখলেই বুঝবেন আসলে এটির মুল উদ্যেশ্য কি? আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কেও অবগত করেছি আমাদের দাবী নিয়ে। আগামী দিনে আমাদের দাবী পুরন হলে দেশের সকল পেশাদার সাংবাদিক এর সুফল পাবে। এই সংগঠনের কাউকে ছোট করে দেখার সুযোগ নেই বলেও জানান তিনি।

সংগঠনের অপর একটি সুত্র জানান নিজের স্বার্থ হাসিল করতে না পেরে সংগঠনটির বিরোধীতা করে অনেকেই ভাব মুর্তি নষ্ট করার চেস্টা করেছে তাতেও তাদের সুফল আসেনি কারন এই সংগঠন সাংবাদিকদের প্রানের সংগঠন। আর এর জন্য সংগঠনের সভাপতি শহিদুল ইসলাম পাইলট সহ সকল কেন্দ্রীয় সদস্যের নিকট আমরা কৃতজ্ঞ।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button