সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

বাংলাদেশ বিমান আটক!

সংবাদ চলমান ডেস্ক:
রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৭৮৭ ড্রিমলাইনার ‘গাঙচিল’থেকে ৪০টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় বাংলাদেশ বিমানটিও আটক করা হয়েছে।

শনিবার (২৩ নভেম্বর) ভোরে উড়োজাহাজ ‘গাঙচিল’-এর একটি সিটের পেছনের স্ক্রু খুলে সোনার বারগুলো উদ্ধার করে ঢাকা কাস্টম হাউসের প্রিভেনটিভ দল। জানা গেছে, ফ্লাইটটি দুবাই থেকে এসে বোর্ডিং ব্রিজ নং-৬ এ অবতরণ করেছিল।

তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা হয়নি। উদ্ধার করা সোনার ওজন ৪ কেজি ৬৪০ গ্রাম। যার আনুমানিক মূল্য ২ কোটি ৩২ লাখ টাকা।

ঢাকা কাস্টমস হাউজের সহকারী কমিশনার (প্রিভেনটিভ) সাজ্জাদ হোসেন জানান, আগেই বিশেষ সূত্রে সংবাদ আসে, ড্রিমলাইনার গাঙচিলের এ ফ্লাইটে সোনা পাচার হবে। এ তথ্যে কাস্টমস কর্মকর্তারা বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে অবস্থান নেয়। বিমান বন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে সব যাত্রী চলে যান। পরে ৬ নম্বর বোর্ডিং ব্রিজে অবতরণ করা সন্দেহভাজন গাংচিলে তল্লাশি করা হয়। একপর্যায়ে উড়োজাহাজের ১৫-এফ নম্বর সিটের ভেতরে লুকানো ৪০টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়।

নাম প্রকাশ না করে কাস্টমস প্রিভেন্টিভ টিমের এক কর্মকর্তা বলেন, যেভাবে সিটের ভেতরে সোনার বার লুকানো ছিল, তাতে ধারণা করা হচ্ছে এই সোনা পাচারের সঙ্গে বিমানের প্রকৌশল বিভাগের কেউ না কেউ জড়িত থাকতে পারে।

উদ্ধার করা সোনা আটক রশিদ (ডিএম) করে কাস্টমস হাউজে জমা রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি মামলাও করা হয়েছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button