সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

বগুড়ায় র‌্যাবের অভিযানে নকল ঔষধ জব্দ গ্রেফতার-২

বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ার আদমদীঘিতে ৩টি নকল ঔষধ তৈরীর কারখানায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ বিভিন্ন ধরনের নকল ঔষধ জব্দ করেছে বগুড়া র‌্যাব-১২ এর একটি দল।

বুধবার সন্ধ্যায় র‌্যাবের একটি বিশেষ (স্পেশাল) দল উপজেলার অর্জুনগাড়ি গ্রামের তিনটি কারখানায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান ঔষধ ও ঔষধ তৈরীর সরঞ্জাম ও কাঁচামাল উদ্ধার করেছে। এ সময় কারখানা মালিক আনোয়ার হোসেন, তার ছোট ভাই আইনুল ইসলামকে আটক করেছে র‌্যাব।

অভিযানের নেতৃত্ব দেন র‌্যাব-১২ এর স্পেশাল কোম্পানী কমান্ডার এএসপি রওশন আলী। অভিযানে আদমদীঘি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল্লাহ বিন রশিদ উপস্থিত ছিলেন। র‌্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার সন্ধ্যায় বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার নশরতপুর ইউনিয়নের অর্জুনগাড়ি গ্রামে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ সময় ওই গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে নকল ঔষধ প্রস্ততকারী আনোয়ার হোসেন, তাঁর ভাই আইনুল হক এবং চাচা আলতাব মন্ডলের বাড়িতে তিনটি নকল ঔষধ কারখানার সন্ধান মেলে। কারখানায় বিপুল পরিমাণ নকল ওষুধের সন্ধান পাওয়া যায়।

জব্দ করা ওষুধের মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন পেইন কিলার, জামবাক, ডকসিক্যাপ, ফিনিক্স, বিফেরেক্স, চায়না ম্যাজিক চক, ভারতীয় হারবাল, কিংডন, স্কিন কিউর, নিউ লাকি মলম, স্পেশাল বিশহরি, শাহসুলতান ক্যাস্ফার লিকুইট, চায়না ড্রপ স্যালাইন, গ্রামীণ চক, সুপাহিটসহ বিভিন্ন ধরনের ঔষধ।

র‌্যাব-১২ এর কোম্পানী কমান্ডার রওশন আলী বলেন, ওষুধের পরিমান প্রচুর। তবে সন্ধ্যা নাগাদ প্রায় ৭০ বস্তা প্যাকেট জাত ঔষধ এবং প্রায় দুই হাজার বোতলজাত নকল ঔষধ উদ্ধার করা হয়েছে। নকল ঔষধ তৈরীর কাজের সাথে জড়িত থাকার অপরাধে কারখানা মালিকদের আটক করা হয়েছে।

তিনি আরোও বলেন, দীর্ঘ দিন থেকে এই চক্রটি বাড়িতে কারখানা তৈরী করে নকল ঔষধ তৈরী করে আসছিল। পরে জব্দ করা সকল নকল ঔষধ আগুন ধরিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়। আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জালাল উদ্দীন এ প্রতিবেদক-কে বলেন, বিষয়টি তিনি জেনেছেন তবে এখন পর্যন্ত কোন মামলা দায়ের হয়নি ।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button