সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

বগুড়ায় ঘরে বৃদ্ধার লাশ, নিজেকে খুনি বললেন ছেলে

সংবাদ চলমান ডেস্ক: বগুড়া শহরের নাটাইপাড়ায় শুক্রবার দুপুরে বাড়ির শোবার ঘর থেকে সোনিয়া চৌহান (৬৫) নামে এক বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এ সময় মাকে হত্যার দাবি করায় তার ইসকন দীক্ষার্থী ছেলে গোপাল চৌহানকে (১৯) আটক করা হয়েছে।

তবে পরিবারের সদস্যদের দাবি, গোপাল মানসিক ভারসাম্যহীন এবং সোনিয়া হৃদরোগে মারা গেছেন।

সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রেজাউল করিম রেজা জানান, মৃত বৃদ্ধার নাক দিয়ে রক্ত ঝরছিল। লাশ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে; ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে তার মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, সোনিয়া চৌহান শহরের নাটাইপাড়া চৌহানপট্টির মৃত জগদীশ চৌহানের স্ত্রী। শুক্রবার সকালে শোবার ঘরের বিছানায় সোনিয়ার লাশ পড়েছিল। পরে সদর থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

সোনিয়ার বড় ছেলে মিঠুন চৌহানের স্ত্রী রিতা চৌহান সাংবাদিকদের জানান, সকালে ঘুম থেকে উঠতে দেরি হওয়ায় তিনি মাকে (সোনিয়া) ডাকতে ঘরে গিয়ে দেখেন বিছানায় তার নিথর দেহ পড়ে রয়েছে। পরে তার স্বামী থানায় খবর দেন।

সদর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) রেজাউল করিম বলেন, সোনিয়ার ছোট ছেলে ইসকন মন্দিরের দীক্ষার্থী গোপাল চৌহান দাবি করেন তিনি তার মাকে হত্যা করেছেন। এছাড়া তিনি অসংলগ্ন কথা বলায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button