সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

উলঙ্গ করে ছবি তোলে ৩৫ লাখ টাকা দাবি, গ্রেফতার ৩

সংবাদ চলমান ডেস্ক:  বগুড়ায় শাজাহান নামে এক ব্যক্তিকে উলঙ্গ করে ছবি তোলে তার পরিবারের কাছে ৩৫ লাখ টাকা দাবির অভিযোগে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার বনানী এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন, জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর উপজেলার আলি মামুদপুর এলাকার ইসহাক আলির ছেলে জনি ও তার স্ত্রী সুমাইয়া আক্তার, বগুড়ার ধুনট উপজেলার সরু গ্রামের আব্দুল মাজেদের মেয়ে সাদিয়া আক্তার।

পুলিশ জানায়, জনি তার স্ত্রীকে নিয়ে বনানীর র‌্যাব ক্যাম্পের পিছনে ভাড়া বাসায়  থাকতো। সেই সঙ্গে সাদিয়া ও সুমাইয়া সম্পর্কে খালাতো বোন।

পুলিশ আরো জানায়, জনি ও সুমাইয়া দম্পতির কাজই হলো বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে আত্মীয়তার সম্পর্ক গড়ে তোলা এবং বিভিন্ন কৌশলে ফাঁদে ফেলে টাকা আদায় করা। তারই রেশ ধরে গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার হরিপুর এলাকার সেকেন্দার আলীর ছেলে শাহজাহানের সঙ্গে ধর্ম আত্মীয়তার সম্পর্ক তৈরি করে তারা। গত ২৭ জানুয়ারি সন্ধ্যার দিকে জোর করে তারা শাহজাহানকে তাদের ভাড়া বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে শাহজাহানকে মারপিট এবং ঠান্ডা পানি ঢেলে নির্যাতন করে। সেই সঙ্গে উলঙ্গ করে ছবি তোলে সাদিয়া। পরে এ ছবি ইন্টারনেটসহ বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে দেয়ার কথা বলে ৩৫ লাখ টাকা ইসলামী ব্যাংকে একটি একাউন্টে পাঠানোর জন্য শাহজাহানের পরিবারের কাছে দাবি করে। শাহজাহানের বাবা বিষয়টি জানা মাত্র দ্রুত সদর থানায় যোগাযোগ করে।

বগুড়া সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান বলেন, আমরা অভিযোগ পাওয়া মাত্র অপহরণকারীদের গ্রেফতার ও ভিকটিমকে উদ্ধার অভিযান শুরু করি। তাদের মোবাইল নম্বর এবং ব্যাংকের হিসাব নম্বর ট্রাকিং করে বনানীর ভাড়া বাসা থেকে বুধবার সকালে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই।

তিনি আরো বলেন, গ্রেফতারদের বিরুদ্ধে মামলা করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button