সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে নারী ধর্ষণের অভিযোগ

সংবাদ চলমান ডেস্ক:
নড়াইলের লোহাগড়ায় একজন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে এক নারীকে (২৩) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ রয়েছে, প্রভাবশালীরা ভূক্তভোগীদের শালিসে আপোষরফা করতে বাধ্য করেছে। ওই নারী ধর্ষকের পিতার বাড়ির ভাড়াটিয়া।

ভূক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা গেছে, লোহাগড়া উপজেলার দিঘলিয়া গ্রামের মৃত আবু সাইদ সরদারের ছেলে বর্তমানে খুলনার রুপসা থানায় কর্মরত পুলিশ কনস্টবল আল-মামুন সরদার (২৪) দীর্ঘদিন ধরে ওই নারীকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণ করছিলেন।

সর্বশেষ গত ১৩ ও ১৭ নভেম্বর রাতে জোর করে ওই নারীকে ধর্ষণ করা হয়েছে । ওই নারী বিয়ের প্রস্তাব দিলে আল-মামুন প্রস্তাব নাকচ করে দেয়। ওই নারী গত সোমবার(১৮ নভেম্বর) লোহাগড়া থানায় মৌখিক অভিযোগ করেন। পরে এলাকার প্রভাবশালীদের চাপে ওই নারী স্থানীয়ভাবে শালিসে বসতে বাধ্য হন। প্রভাবশালীরা ৬০ হাজার টাকায় মিমাংসা করলেও ওই নারী টাকা চান না। ন্যায্য বিচার চান।

অভিযুক্ত আল-মামুন সরদারের ব্যবহৃত ফোন (০১৯১২৬১০১২২) নাম্বারে ফোন দিলে সাংবাদিক শুনে ফোন কেটে দেন।

লোহাগড়া থানার ওসি(তদন্ত) আমানুল্লা-আল বারী এবিষয়ে বলেন, ওই নারী ১৮ নভেম্বর আমাদের কাছে মৌখিকভাবে ধর্ষণের অভিযোগ করেছিলেন। কিন্তু পরের দিন আবার থানায় এসে জানালেন মিমাংসা করে ফেলেছেন। লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নিতে বলেছেন কর্তৃপক্ষ।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button