সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

পুলিশের পোশাক পরে ফাঁড়ির পাশে দুর্ধর্ষ ডাকাতি

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি

সংবাদ চলমান ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি হয়েছে। পুলিশের পোশাক পরে নৈশপ্রহরীর হাত-পা বেঁধে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে দুর্ধর্ষ এই ঘটনা ঘটায় ডাকাতরা।

এ সময় তিনটি স্বর্ণের দোকান থেকে ১০০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, ৭৫ কেজি রুপা, নগদ টাকা ও একটি মোবাইলের দোকান থেকে ৫০টি মোবাইল লুট করে নিয়ে যায় ডাকাত দল।

ঘটনাস্থল থেকে মাত্র একশ গজ দূরে স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ি হওয়া সত্ত্বেও ডাকাতির সময় পুলিশ না আসায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে স্থানীয়রা। ডাকাতরা প্রায় ৯০ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায় বলে দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্তরা।

সোমবার রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের রাধানগর এলাকায় এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পুলিশ।

স্বর্ণের দোকানদার উজ্জ্বল বলেন, রাতে দোকান বন্ধ করে বাড়িতে চলে যাই। গভীর রাতে মার্কেটের নৈশপ্রহরী আব্দুল ও হাশেমের হাত-পা বেঁধে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তিনটি স্বর্ণের দোকান ও একটি মোবাইলের দোকানের তালা ভেঙে ডাকাতি করে ২৫-৩০ জনের ডাকাত দল। আমার দোকান থেকে ৭০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, ৪০ কেজি রুপা ও নগদ ৭ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায় ডাকাতরা। সকালে নৈশপ্রহরীর কাছে জানতে পারি ডাকাত দল পুলিশের পোশাক পরে এসেছে। মুখোশ পরে ডাকাতি করেছে তারা।

পাশাপাশি একই মার্কেটের মোস্তফা ও শাহিনের স্বর্ণের দোকান ও মোক্তারের মোবাইলের দোকান লুট করেছে ডাকাতরা। তাদের দোকান থেকে সব কিছু নিয়ে গেছে। মোস্তফার স্বর্ণের দোকান থেকে ২০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, ২০ কেজি রুপা নিয়ে যায় ডাকাতরা। শাহিনের স্বর্ণের দোকান থেকে ১০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, ১৫ কেজি রুপা ও নগদ দুই লাখ টাকা নিয়ে যায়। মোক্তার হোসেনের দোকান থেকে ২০টি অপো মোবাইল, ১০টি স্যামসাং ও ১৫টি অন্যান্য মোবাইল নিয়ে যায়।

কালাপাহাড়িয়া পুলিশ ফাঁড়ি তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আব্দুল খালেক বলেন, খবর পেয়ে সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়। উপজেলার রাধানগর এলাকার তিনটি স্বর্ণের দোকান ও একটি মোবাইলের দোকানের মালামাল লুটে নিয়ে গেছে ডাকাতরা।

আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের রাধানগর এলাকার মার্কেটের দুজন নৈশপ্রহরীর হাত-পা বেঁধে তিনটি স্বর্ণের দোকান ও একটি মোবাইলের দোকান থেকে সব মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে ডাকাতরা। ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার করা হবে। সেই সঙ্গে মালামাল উদ্ধার করা হবে। পুলিশের পোশাক পরে ঘটনাটি ঘটানো হয়েছে বলে লোকজন জানিয়েছে। বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করছি আমরা।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো পড়ুন
Close
Back to top button