সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

দাদিকে বিদায় করে নিজ রুমে নিয়ে ছাত্রীকে ধর্ষণ করে শিক্ষক

সংবাদ চলমান ডেস্ক:
দাদিকে বিদায় করে নিজ রুমে নিয়ে ছাত্রীকে ধর্ষণ করে শিক্ষক
নওগাঁর মান্দায় ছোট চকচম্পক গ্রামে নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে শিক্ষক আমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে। ধর্ষণ করার অভিযোগ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আমিনুল ইসলাম উপজেলার কাঁশোপাড়া ইউনিয়নের ছোট চকচম্পক গ্রামের মৃত মহির উদ্দিনের ছেলে এবং ছোট চকচম্পক বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।
ভিকটিম শিক্ষার্থীর দাদি জানান, গেল শুক্রবার সকাল সাতটার দিকে আমার নাতনিকে প্রাইভেট পড়ার জন্য প্রতিবেশী শিক্ষক আমিনুল ইসলামের বাসায় নিয়ে যাই।
এ সময় সেখানে আর কোনও শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিল না। এ অবস্থায় নাতনিকে সেখানে রেখে আমি বাসায় চলে আসি। এর কিছু পরে নাতনি কাঁদতে কাঁদতে বাসায় ফিরে আসে। পরে তার মায়ের কাছে শিক্ষক আমিনুল জোর করে তাকে যে ধর্ষণ করেছে সে বিষয়টি বিষয়টি জানিয়ে দেয়।

শিক্ষার্থীর দাদি আরও বলেন, অন্য শিক্ষার্থীদের অনুপস্থিতিতে শিক্ষক আমিনুল ইসলাম আমার নাতনিকে ডেকে বাসার তিন তলার একটি কক্ষে নিয়ে যায় । সেখানে মুখ চেপে ধরে তাকে ধর্ষণ করে। শিক্ষক আমিনুলের পরিবার প্রভাবশালী হওয়ায় তারা চরম আতঙ্কে রয়েছেন বলেও দাবি করেন ভিকটিমের দাদি।
স্থানীয়রা জানান, এ ঘটনায় ভিকটিম শিক্ষার্থীর মা বিদ্যালয়ের প্রধানশিক্ষক রহিদুল ইসলামের নিকট গেল শনিবার মৌখিক অভিযোগ দেন। কিন্তু প্রধান শিক্ষক এ বিষয়ে কোনও পদক্ষেপ না নিয়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেন। অবশেষে গেল সোমবার ভিকটিমের মা বাদী হয়ে মান্দা থানায় শিক্ষক আমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছেন।
অভিযুক্ত শিক্ষক আমিনুল ইসলামকে না পাওয়ায় তার সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রহিদুল ইসলাম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করার জন্যে বলে দেওয়া হয়েছে।
মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাফফর হোসেন জানান, ঘটনাটি অবহিত হয়ে শিক্ষক আমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা নেওয়া হয়েছে। ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষাসহ আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button