সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

একই কারখানায় ফের ভেজাল গুড়, ৩৫ মণ ধ্বংস কারাগারে ১

সংবাদ চলমান ডেস্ক: রাজবাড়ীর পাংশায় ভেজাল গুড় তৈরির কারখানায় অভিযান চালিয়েছে উপজেলা প্রশাসন ও রাজবাড়ী ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বৃহস্পতিবার দুপুরে মৌশালা বাসস্ট্যান্ডের পাশের একটি কারখানায় ৩৫ মণ ভেজাল গুড় ধ্বংস করা হয়। আটক করা হয় ওই কারখানা মালিক মাধব কুমার পালকে (২৮)। পরে তাকে একমাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম।

দণ্ডিত মাধব কুমার পাল পাংশা পৌরসভার মৌশালা পালপাড়া এলাকার জীবন কুমার পালের ছেলে।

জানা গেছে, গত ২০১৯ সালের ৯ মে ওই গুড় কারখানায় পাংশা উপজেলা প্রশাসন ও রাজবাড়ী ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর অভিযান পরিচালনা করে ২৫০ মণ ভেজাল গুড় ধ্বংস করেন এবং ৫০ হাজার টাকার জরিমানা আদায় করেন।

রাজবাড়ীর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. শরীফুল ইসলাম বলেন, পাংশার মৈশালা বাসস্ট্যান্ড এলাকার তাপস পালের গুড় কারখানায় দীর্ঘদিন যাবত ভেজাল গুড় তৈরি করা হচ্ছিল। অভিযানে চিড়াগুড়, ক্ষতিকারক রং, চিনি, আখের গুড় ও খেজুরের গুড় জব্দ করা হয়।

পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম জানান, গো-খাদ্য চিড়াগুড়, ক্ষতিকারক রং, ফিটকিরি, চিনি মিশিয়ে দীর্ঘদিন যাবত ভেজাল গুড় তৈরি করে আসছিলো কারখানাটি। আগামীতে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button