সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

অস্ত্রের মুখে অপহরণের পর নারীকে রাতভর ধর্ষণ, গ্রেফতার ১

সংবাদ চলমান ডেস্ক: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় স্বামী পরিত্যক্তা এক নারীকে অপহরণ করে রাতভর ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় চিহ্নিত সন্ত্রাসী পলাশ মোড়ল ধর্ষণ শেষে ওই নারীকে ঢাকায় যেতে বাধ্য করেছেন বলে অভিযোগ ভুক্তভোগী ও তার পরিবারের।

পরে এ ঘটনা থানা-পুলিশকে না জানাতে হত্যার হুমকি দিয়ে ওই নারীর মাকে অবরুদ্ধ করে রাখে পলাশ বাহিনির সন্ত্রাসীরা। বুধবার দুপুরে পুলিশ খবর পেয়ে উপজেলার ধানখালী ইউপির নির্মাণাধীন পটুয়াখালী  তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকা থেকে ভুক্তভোগী ওই নারীর মাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। পরে চারজনকে আসামি করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়েরের পর একজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

নির্যাতিতা ওই নারী জানান, তিনি একজন গার্মেন্টকর্মী। ঢাকা থেকে নিজ বাড়িতে মায়ের কাছে বেড়াতে এসেছিলেন। ঘটনার দিন শনিবার (১৮ জানুয়ারি) রাতে নিজ ঘরে ঘুমানোর জায়গা সংকট থাকায় পার্শ্ববর্তী দিদির ঘরে ঘুমাতে যান। ধর্ষক পলাশ মোড়ল সেখানে গিয়ে অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে প্রথমে ওই ঘরে বসেই ইয়াবা সেবন করেন। পরে গলায় ছুরি ধরে একটি বাগানে নিয়ে বিবস্ত্র করে রাতভর নির্যাতন চালায় পলাশ। ভোরে ফের ওই বাড়িতে রেখে কাউকে এ খবর না জানানোর জন্য হত্যার হুমকি দেয়। একপর্যায়ে তাকে ঢাকায় যেতে বাধ্য করা হয়।

এ ঘটনার পর প্রত্যক্ষদর্শী দিদি স্থানীয় তোফাজ্জেল হোসেনের স্ত্রী অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে কয়েকবার চিকিৎসা করানো হয়। পলাশ মোড়লের পক্ষ নিয়ে তোফাজ্জেলের পরিবারসহ কেউ প্রতিবাদ করলেই তাদের হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা। এমনকি অবরুদ্ধ থাকাবস্থায় ভিকটিমের মাকে পুলিশের সামনেই হুমকি দেন পলাশ মোড়লের স্বজনরা।

কলাপাড়া থানার ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, একটি ধর্ষণ মামলা দায়েরের পর একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়া পলাশ মোড়লসহ বাকিদের দ্রুত গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button