সংবাদ সারাদেশসারাদেশ

অজ্ঞান পার্টির কবলে পুলিশ সদস্য যশোর প্রতিনিধি

সংবাদ চলমান ডেস্ক:
আরিচা-দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে অজ্ঞান পার্টির কবলে পড়ে পকেটে থাকা ১০ হাজার টাকা ও একটি অ্যানড্রোয়েড ফোন হারিয়েছেন রাকিব হোসেন (২২) নামের এক পুলিশ সদস্য। বর্তমানে তিনি যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে যশোর শহরের মণিহার এলাকা থেকে পুলিশ রাকিবকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

advertisement
ভুক্তভোগী রাকিব হোসেন লক্ষ্মীপুর পুলিশ লাইনসে কর্মরত। তিনি চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার মুছাপুর এলাকার শামছুল হুদার ছেলে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রাকিব হোসেন জানান, তিনি গতকাল সোমবার রাতে ঢাকার গাবতলী থেকে এস আলম পরিবহনের একটি বাসে করে যশোরের উদ্দেশে রওয়ানা দেন। আজ যশোরের আদালতে একটি মামলায় সাক্ষ্য দেওয়ার কথা ছিল তার। তবে রাত ১টার দিকে আরিচা ফেরিঘাটে গাড়ি থামলে তিনি সেখানে একটি ডাব কিনে খান। এরপরে কী হয়েছে-তা তিনি জানেন না।

advertisement
রাকিব জ্ঞান ফিরে দেখেন, তিনি হাসপাতালে। তার পকেটে থাকা দশ হাজার টাকা ও একটি অ্যানড্রোয়েড ফোন খোয়া গেছে।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. শফিউল্লাহ সবুজ বলেন, ‘তাকে কেউ চেতনানাশক দ্রব্য পান করিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার জ্ঞান ফিরেছে, তিনি আশঙ্কামুক্ত।’

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, ‘অজ্ঞান অবস্থায় ওই পুলিশ সদস্যকে উদ্ধার করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ বিষয়ে খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে।’

এর আগে, সোমবার যশোরের বারান্দিপাড়া এলাকার মোতাসিম বিল্লাহ খান ও তার স্ত্রী লিজা আক্তার ঢাকা থেকে সোহাগ পরিবনের বাসে কলকাতা যাওয়ার পথে ফেরিঘাটে এসে আখের রস পান করে অজ্ঞান পার্টির কবলে পড়েন। এ সময় তাদের কাছে থাকা দেড় লাখ টাকা, পাসপোর্ট ও আইফোন খোয়া যায়। পরে বাসের অন্য যাত্রীরা তাদেরকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button