লাইফস্টাইল

হৃদরোগ ও ডায়বেটিস নির্মূলে পটল!

চলমান ডেস্ক: সবুজ শরীরে দাগ কাটা একটি সবজি পটল। বাংলাদেশের জনপ্রিয় ও সহজলভ্য সবজি এটি। এই পটলের রয়েছে বিভিন্ন ব্যবহার। ভর্তা, ভাজি, মাছের সঙ্গে বা বিভিন্ন সবজির সঙ্গেও রান্না করে খাওয়া হয় পটল।

এটি একটি পুষ্টিকর খাদ্য। এই পটলে রয়েছে ভিটামিন এ, বি ১, সি, ক্যালসিয়াম এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। এটি সবজি হিসেবেই আমরা খেয়ে। তবে জানেন কি? পটল ও এর বীজের রয়েছে অগণিত স্বাস্থ্য উপকারিতা। যা আমরা অনেকেই জানি না! চলুন তবে জেনে নেয়া যাক পটলের স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে-

> সবুজ রঙের এই সবজিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার বা আঁশ। এই ফাইবার খাদ্য হজম করতে সাহায্য করে এবং গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দূর করে। এক্ষেত্রে পটল ও ধনে পাতা হালকা ছেঁচে পানিতে ভিজিয়ে ৩ বার খেলে হজম শক্তি বৃদ্ধি পাবে।

> পটলের বীজে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে।

> নিয়মিত পটল খেলে আমাদের শরীরের রক্ত পরিষ্কার হয় এবং ত্বক ভালো থাকে। তাই ত্বকের যত্ন নিতে বেশী করে পটল খান।

> পটলে ক্যালোরির পরিমাণ অনেক কম থাকায় পেট ভরা মনে হয় এবং ক্ষুদা কম লাগে। নিয়মিত পটল খেলে আমাদের শরীরের ওজন বাড়ে না।

> পটলের বীজে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকায় রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা সঠিক থাকে ও চিনির পরিমাণ স্বাভাবিক থাকে। ফলে হৃদরোগ ও ডায়বেটিসের ঝুঁকি থাকে না।

> আয়ুর্বেদী চিকিৎসায় ঠাণ্ডা, জ্বর ও গলা ব্যথা কমতে ওষুধ হিসেবে ব্যবহার করা হয় পটল।

> পটলের রস মাথায় লাগালে মাথা ব্যাথা দূর হবে এবং যাদের অল্প বয়সে টাকের সমস্যা রয়েছে তাদের টাক সমস্যা দূর হবে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button