দূর্গাপুররাজশাহীরাজশাহী সংবাদ

রাজশাহীর সেই সন্ত্রাসী রাব্বানীর হামলার প্রতিবাদে দুর্গাপুরে মানব বন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

রাজশাহীর মতিহার থানার তালিকা ভুক্ত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী রাব্বানীর সহ যোগীদের গ্রেপ্তার সহ রাব্বানীর বিরুদ্ধে আরো কঠোর শাস্তি দাবি করে মানব বন্ধন করলেন দুর্গাপুরের সাংবাদিক বৃন্দ।

এ সময় বোমারু রাব্বানীর কঠোর শাস্তি দাবি করে বক্তব্য রাখেন দুর্গাপুর নবযাত্রা প্রেসক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম, সহ সভাপতি জি এম কিবরিয়া, সাংবাদিক রাসেদুল ইসলাম, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হুদা, সাংগঠনিক সম্পাদক নাহিদ ইসলাম, সাংবাদিক শাহিন আলম, সহ অনান্য সাংবাদিকরা।

সাংবাদিকরা তাদের বক্তব্যে বলেন ২২ সেপ্টেম্বর রাতে রাজশাহী মডেল প্রেসক্লাবে সন্ত্রাসী রাব্বানী ও তার সন্ত্রাসী বাহীনি যে হামলা চালিয়েছে তা অত্যান্ত কস্টকর। উপজেলা সাংবাদিকদের দাবি এই হামলার সাথে যারাই জড়িত থাকুক তাদের খুঁজে বেরকরে এমন শাস্তি দেওয়া হোক যেন ভবিষ্যতে কোন অপরাধি সাংবাদিকদের উপর কালো নজর রাখার শাহস না পায়।

উপজেলা সাংবাদিকদের এই প্রতিবাদ মানব বন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন রাজশাহী মডেল প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি দৈনিক অধিকারের রাজশাহী প্রতিনিধি ও বাংলা সংবাদের সম্পাদক রাফিকুর রহমান লালু। রাজশাহী মডেল প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ সভাপতি দৈনিক রাজশাহীর মফস্বল সম্পাদক শফিকুল ইসলাম।

রাজশাহী মডেল প্রেসক্লাবের সদস্য হাসিবুল ইসলাম। সাংবাদিকরা বলেন রাজশাহীর মতিহার থানার একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী এই রাব্বানী কিছুদিন যাবত নিজেকে ভুঁইফোঁড় সাংবাদিক পরিচয় দিতে শুরু করেছেন। এই রাব্বানীর বিরুদ্ধে রাসিক মেয়রের গাড়িতে হামলা নিজ বাড়িতে বোমা উদ্ধার সহ ১২ টির উপরে মামলা চলমান রয়েছে। রাজশাহীতে সরকার বিরোধী সকল কাজের সাথে এই রাব্বানীর নাম রয়েছে । সরকারের চুল ছেড়া তদন্ত দাবি করেন সাংবাদিকরা। তারা বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সহজ সরল বলে এই ধরনের দেশদ্রহীরা এখনো দেশের মাটিতে ঘুরছে।

সাংবাদিক নেতারা বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর রাজশাহী সফরের কিছুদিন পুর্বে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে এই রাব্বানীর বাড়ি থেকে ভয়ংকর বোমা ও বোমা তৌরির সরঞ্জাম সহ রাব্বানীকে আটক করেন পুলিশ। এর পর রাব্বানী দীর্ঘ সময় কারা হাজতে আটক থেকে জামিনে মুক্ত হয়ে আবারো নেমে পড়েন অপরাধ জগতে। নাশকতা মামলা সহ মাদক মামলা চলমান এই সরকার বিরোধী রাব্বানীর নামে।

মাদকের মোটা চালান রাব্বানীর নিয়ন্ত্রনে থাকার কারনে অল্প সময়ের মধ্যেই নগদ অর্থের মালিক বনেগেছেন এই রাব্বানী। আর এম পি পুলিশ কমিশনারের নিকট সাংবাদিক সমাজের দাবি রাব্বানীর সকল রেকর্ড যাচাই করে তার অপরাধ জগত বন্ধ করে কঠোর থেকে কঠোর তম ব্যবস্থা গ্রহন করা হোক। এই রাব্বানীর সন্ত্রাসী বাহীনির সকল কে অচিরেই গ্রেপ্তার না করা হলে বৃহত্তর কর্মসুচি দেওয়ার ঘোষনা দেন সাংবাদিক সমাজ।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button