রাজশাহীরাজশাহী সংবাদ

বাবাকে বাঁচাতে কলেজ শিক্ষার্থীর রাস্তায় আকুতি

বাবাকে বাঁচাতে কলেজ শিক্ষার্থীর রাস্তায় আকুতি

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাবা দীর্ঘদিন ধরে ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। আর পরিবারের শেষ সম্বল বাবাকে বাঁচানোর জন্য কোন উপায় না পেয়ে শেষ পর্যন্ত টাকার জন্য রাস্তায় নেমেছেন কলেজশিক্ষার্থী সোহাগ। রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার জয়কৃষ্ণপুর গ্রামের কোবাদ আলী ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত। সোহাগ তার ছেলে। মঙ্গলবার তাকে দুর্গাপুরের বিভিন্ন এলাকায় যানবাহন ও বিভিন্ন জনের থেকে বাবার চিকিৎসার জন্য টাকা তুলতে দেখা যায়। নিরুপায় হয়েই সে এটা করেছে।

কলেজ শিক্ষার্থী সোহাগ বলেন, আমার বাবা একজন গরীব কৃষক। বাড়ির ভিটা ছাড়া আমাদের কোনো জমি নেই, এমনকি আমার পড়াশোনা খরচ বাবার পক্ষে থেকে চালানো সম্ভব না। তাই আমি মানুষের জমিতে কামলা খেটে পড়াশোনা করছি। পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী আমার বাবা। আজ তিনি ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত হয়ে শয্যাশায়ী হওয়ায় আমরা মানবেতর জীবন-যাপন করছি। টাকা পয়সা না থাকায় বাবার চিকিৎসার জন্য সব লজ্জা-শরম বিসর্জন দিয়ে মানুষের কাছে হাত পাততে বাধ্য হচ্ছি।

বাবাকে বাঁচাতে সবার সহযোগিতা চায় সোহাগ। এজন্য সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে সে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button