দূর্গাপুররাজশাহীরাজশাহী সংবাদ

দুর্গাপুরে ছাত্রলীগ নেতাকে ফাঁসাতে প্রযুক্তি ব্যবহার

 নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

নিজেদের সুবিধা লুফে নিতে এবার ছাত্রলীগ নেতাকে ফাঁসাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে  রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার একটি সংবদ্ধ চক্র।

জানা গেছে সেই ছাত্রলীগ নেতার ছবি প্রযুক্তির মাধ্যমে মাদকের বোতলের সাথে জড়িয়ে বিভিন্ন ফেসবুক সহ কিছু নাম মাত্র অনলাইন পত্রিকায় প্রতিহিংসা মুলক পোস্ট দেওয়া হচ্ছে, এই নিয়ে দুর্গাপুর উপজেলা ছাত্রলীগের মাঝে জমেছে ক্ষোভ।

দুর্গাপুরের একাধিক ব্যক্তি মুঠো ফোনে সংবাদ চলমান কে বলেন দুর্গাপুরের উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান আতিককে জড়িয়ে প্রযুক্তির মাধ্যমে একটি মাদকের বোতল সহ যে ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে  দেওয়া হয়েছে তার সাথে বাস্তবতার কোন মিল নেই।

সেই কুশায়াচ্ছন্ন ছবি এমন ভাবে মাদকের সাথে যোগ করেছে যে কোন সুশীল সমাজের কেউ দেখলেই বুঝবে এটি এক রহস্যময় কাহীনি। তবে ছাত্রলীগ নেতাকে ছোট করতে কোন চক্র কাজ করছে সেটি খতিয়ে দেখার জন্য প্রশাসনের প্রতি বিশেষ দাবি করেছেন দুর্গাপুরের সরকার দলীয় রাজনীতির সাথে জড়িত একাধিক ব্যক্তি।  এই নিয়ে অনেকেই বলছেন আতিকুর রহমান আতিক সক্রিয় ছাত্রলীগ করার কারনেই অপর পক্ষ তাকে রাজনীতির রষানলে ফেলতেই এমন ফন্দি এটেছে।

তবে যোগাযোগ মাধ্যমে এই ছবি কার মাধ্যমে প্রচার হচ্ছে সেটি ক্ষতিয়ে দেখার জন্য ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান আতিক আইনগত ভাবে সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন। তিনি বলেন আমি ছাত্রলীগে সক্রিয় হয়ার পর থেকেই একটি পক্ষ আমাকে ছোট করতে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছেন।

তিনি বলেন আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ছাত্রলীগ করি , এভাবে সিন্ডিকেট করে আমাকে ছোট করা যাবেনা, আমি সকলকে বলতে চাই নোংরা রাজনীতি করে দলকে ছোট করবেন না। এই নিয়ে রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগের একজন সিনিয়র রাজনীতিবিদ বলেন দুর্গাপুরে কেউ ভালোকাজ করতে গেলেই তাকে হয়রানি হতে হয় বিভিন্ন কৌশলে, তিনি বলেন আতিক বয়সে ছোট বলে এই মারপেচ বুঝে উঠতে পারেনি।

 

এই ধরনের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
%d bloggers like this: