নাটোররাজশাহী সংবাদ

নাটোরে তালাবদ্ধ ইউপি ভবন: সন্ধ্যা হলেই বসে নেশাখোরদের আড্ডা

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের সিংড়া উপজেলার ৯ নম্বর তাজপুর ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে গরু-ছাগলের বসবাস। উদ্বোধনের এক যুগ পেরিয়ে গেলেও ভবনের চেয়ারম্যান কক্ষ, সচিব কক্ষ, কৃষক তথ্য পরামর্শ কেন্দ্র, উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্র, ডিজিটাল সেন্টারের মতো গুরুত্বপূর্ণ কক্ষগুলো দীর্ঘ এক যুগ ধরে তালাবদ্ধ থাকায় কাঙিক্ষত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এ ইউনিয়নের প্রায় ২০ হাজার মানুষ। ভবনটিতে জমেছে ময়লার স্তুপ। আর সন্ধ্যা হলেই বসে নেশাখোরদের আড্ডা। এলাকাবাসীর দাবি, ভবনটি চালু করে কাঙিক্ষত সেবা দেয়া হোক।

সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৯ সালের ১০ জানুয়ারি উপজেলার ৯ নম্বর সিংড়া ইউনিয়ন পরিষদের কিছু এলাকা নিয়ে সিংড়া পৌরসভা ঘোষণা করা হয়। আর বাকী অংশ নিয়ে ৯ নম্বর তাজপুর ইউনিয়ন পরিষদ গঠিত হয়। পৌরসভা ঘোষণার কারণে সাবেক সিংড়া ইউনিয়ন পরিষদ ভবনটি সিংড়া পৌরসভার আওতায় চলে যায়। পরে ২০০৫ সালে হাট তাজপুর এলাকায় এলজিইডির বাস্তবায়নে ৯ নম্বর তাজপুর ইউপি ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়। এবং ২০০৭ সালে ৫ই এপ্রিল নবনির্মিত ওই ভবনের আনুষ্ঠানিক শুভ উদ্বোধন করেন তৎকালীন জেলা প্রশাসক এসএম এহসান কবীর। কিন্তু উদ্বোধনের দীর্ঘ এক যুগ পেরিয়ে গেলেও ওই ভবনের কার্যক্রম চালু হয়নি। বরং পৌর শহরের সেই সাবেক পুরাতন ইউপি ভবনের একটি কক্ষ নিয়ে কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। এতে কাঙিক্ষত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে অত্র ইউনিয়নের জন সাধারণ। নতুন ভবন তালাবদ্ধ থাকায় উপকারভোগী ভিজিডি, ভিজিএফ কার্ডধারীদের অতিরিক্ত টাকা ও সময় ব্যয় করে সিংড়া পৌর শহরের পুরাতন ভবনে যেতে হচ্ছে।

তাজপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রাব্বি হোসেন ও নিতাই হালদার বলেন, পরিষদের কোন সনদপত্র প্রয়োজন হলে তাদেরকে ক্লাস ফাকি দিয়ে ১১ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে সিংড়া পৌর শহরে যেতে হয়।
ভাদুরীপাড়া গ্রামের আরিফ হোসেন বলেন, ডিজিটাল যুগে ভবনে ইন্টারনেট সংযোগ, তথ্য সেবা কেন্দ্র ও কৃষক তথ্য সেবা কেন্দ্র থাকলেও তালাবদ্ধ থাকায় এলাকাবাসী কাঙিক্ষত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।
স্থানীয় ভ্যান চালক আসলাম ও আব্দুর রহিম বলেন, তাজপুর স্কুল ও বাজারের পাশে এতো বড় অট্টালিকা অযত্মে নষ্ট হচ্ছে। অথচ আমরা ইউনিয়নবাসী সকল সেবা বঞ্চিত। সেই খবর কি চেয়ারম্যান রাখে?

স্থানীয় তাজপুর বাজারের ব্যবসায়ী আলম হোসেন বলেন, সন্ধ্যা হলেই ভবনে নেশাখোরদের আড্ডা বসে। কয়েকদিন আগে এই ভবন থেকে কয়েকজন নেশাখোরকে আটকও করেছে পুলিশ।
তাজপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহসিন আলীকে ভবনটি কেন এতদিন চালু হয়নি জিজ্ঞাসা করা হলে বিষয়টি রাজনৈতিক বলে তিনি মন্তব্য করেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল কুদ্দুস বলেন, এই ভবনের কার্যক্রম চালু করা হলে জনগণের যেমন সেবা পেতে সুবিধা হবে তেমনি এলাকার উন্নয়ন হবে। তবে ভবন কেন চালু হচ্ছে না সেটা চেয়ারম্যান সাহেব ভালো জানেন বলে তিনি মন্তব্য করেন।

তাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিনহাজ উদ্দিন বলেন, তার ইউনিয়নটি ভৌগলিক কারণে দু’ভাগে বিভক্ত। তাই তিনি শহরের সাবেক ভবনেই বসেন। তবে নতুন ভবনটিতে মাঝে মাঝে শালিস করে থাকেন বলে জানান তিনি।

সিংড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন, এরপর থেকে ইউনিয়নের সকল কার্যক্রম যাতে ওই ভবনে চলে সে ব্যাপারে তিনি ব্যবস্থা নিবেন। এরপরে ভিজিডি, ভিজিএফ চাল বিতরণের ধার্য্য দিনে নবনির্মিত ভবন পরিদর্শনে যাবেন তিনি। আর সেখানে কাউকে না পাওয়া গেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button