রাজশাহী সংবাদ

রাজশাহী ‘শাহ মখদুম বিমানবন্দরকে ঢেলে সাজানো হবে: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বলে জানিয়েছেন রাজশাহীর শাহ মখদুম (রহ.) বিমানবন্দরকে ঢেলে সাজানো হবে বলে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন, শিগগিরই এই সংস্কার কাজ শুরু করা হবে।

গতকাল শনিবার তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা অনুযায়ী শিগগিরই এই সংস্কার কাজ শুরু করা হবে। এ দিন বিকেলে রাজশাহীর শাহ মখদুম (রহ.) বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।
এর আগে প্রতিমন্ত্রী দেশের অন্যতম এই অভ্যন্তরীণ বিমানবন্দরের অবকাঠামো ও নিরাপত্তাসহ সার্বিক কার্যক্রম পরিদর্শন করেন এবং সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, কেবল রাজশাহীর শাহ মখদুম বিমানবন্দরই নয় দেশের প্রতিটি বিমানবন্দরের সংস্কারের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার নির্দেশনার পরই বিমানবন্দরগুলোর সংস্কার কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে। এর আওতায় রাজশাহী বিমানবন্দরের রানওয়ে সম্প্রসারণ, অবকাঠামোগত উন্নয়ন, আধুনিক টার্মিনাল ভবন নির্মাণসহ বিভিন্ন সংস্কার কাজ করা হবে। আর শিগগিরই এ কাজ শুরু হবে।

এ সময় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মহিবুল হক, প্রতিমন্ত্রীর একান্ত সচিব মো. আব্দুল জলিল, রাজশাহী জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক, রাজশাহীর শাহ মখদুম বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক সেতাফুর রহমানসহ আওয়ামী লীগ ও প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মহিবুল হক বলেন, আমরা শাহ মখদুম বিমানবন্দরের রানওয়ে সম্প্রসারণ করতে যাচ্ছি। এখন দেখেন একসঙ্গে একটির বেশি বিমান এই রানওয়েতে দাঁড়াতে পারে না। তাই এখানে যেন একইসঙ্গে তিনটি বিমান দাঁড়াতে পারে আমরা সেই ব্যবস্থাই করছি। আমরা এই বিমানবন্দরে থাকা রানওয়ের স্ট্রেন্থ (প্রসারণ) বাড়াচ্ছি।

এরই মধ্যে ডিপিপি (উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা) করেছি। আর আজ সরেজমিনে এসে সব দেখেও গেলাম। পরে বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহর পার্শ্ববর্তী ‘শেখ হাসিনা’ সেতু সংলগ্ন স্থানে প্রস্তাবিত পর্যটন কেন্দ্রের জায়গা পরিদর্শনে যান।

পরিদর্শন শেষে প্রতিমন্ত্রী বলেন, শিগগিরই চাঁপাইনবাবগঞ্জে আধুনিক মানের পর্যটনকেন্দ্রের কাজ শুরু হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের প্রতিটি প্রকল্পের কাজ যথাসময়ে শুরু হয়ে সঠিক সময়ের মধ্যে তা শেষ করার নির্দেশনা রয়েছে। পর্যটনকেন্দ্রটি ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৪৪ একর জায়গার ওপর স্থাপন করা হবে।

তিনি বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ একটি উন্নত, প্রসিদ্ধ ও ঐতিহ্যবাহী জেলা। এই জেলার আম বিভিন্ন জেলায় রপ্তানি করা হয়, এই জেলায় রয়েছে ঐতিহ্যবাহী সোনামসজিদ। এটিও একটি দর্শনীয় জায়গা। সেখানের সংস্কার ও উন্নয়ন কাজ চলছে। এই পর্যটনকেন্দ্রও সবার সহযোগিতায় একটি আধুনিক পর্যটনকেন্দ্র হিসেবে গড়ে উঠবে। এজন্যই তার এই পর্যটন এলাকা পরিদর্শনে আসা-যোগ করেন প্রতিমন্ত্রী।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button