রাজশাহী সংবাদ

রাজশাহী জেলার ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তারা এখন নিজেদের ভবিষ্যত নিয়ে চরম বিপাকে

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী জেলার ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তারা এখন নিজেদের ভবিষ্যত নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন।
এ উদ্যোক্তারা ২০১০ সাল থেকে ডিজিটাল সেন্টারে বিনা বেতনে কাজ করার পাশাপাশি দীর্ঘ দিন থেকে তাদের চাকুরী স্থায়ীকরণের দাবি করে আসছিল। গত (৩০-০৯-২০১৯) রাজশাহী জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের একটি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর জেলা ব্যাপী ইউনিয়ন পরিষদ ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তাদের টেনশনটা আরো বেড়ে গেল বলে জানিয়েছেন কয়েকজন উদ্যোক্তা। রাজশাহী জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের অধীন জেলার ১৯টি ইউনিয়ন পরিষদে “হিসাব সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর” নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালে পূর্বের উদ্যোক্তাদের বাদ দিয়ে বিভিন্ন জেলার ইউনিয়ন পরিষদে হিসাব সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। ওই সময় এ নিয়োগ বাতিল করে উল্লেখিত পদে উদ্যোক্তাদের স্থায়ী নিয়োগ দেয়ার জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে আমরণ অনশন কর্মসূচী পালন করে উদ্যোক্তারা। পরে ২০১৭ সালে হিসাব সহকারী কাম কম্পিউটার পদে উদ্যোক্তাদের নিয়োগের জন্য হাইকোর্টে রিট করা হয়। উচ্চ আদালতের বিচারক সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে রিটকারীদের নিয়োগের জন্য নির্দেশনা প্রদানের পর রায়ের বিপক্ষে সরকার পক্ষ আপীল করে। আপীলের শুনানিতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে উদ্যোক্তাদের নিয়োগের জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়। উদ্যোক্তাদের অভিযোগ রাজনৈতিক ও রহস্যজনক কারণে হিসাব সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর পরে নিয়োগের ক্ষেত্রে উদ্যোক্তাদের কোন অগ্রাধিকার না দিয়েই কয়েকটি জেলায় নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা হয়। পরবর্তীতে পুনরায় আদালতের দ্বারস্থ হয় উদ্যোক্তারা। যে মামলা এখনও চলমান রয়েছে। এছাড়াও এ নিয়ে পরে পৃথকভাবে আরও কয়েকটি রিট করেন উদ্যোক্তারা। সেগুলোও শুনানির অপেক্ষায় রয়েছে। যার প্রেক্ষিতে বিভিন্ন জেলায় নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ রয়েছে। ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে ২ জন করে নারী ও পুরুষ উদ্যোক্তা রয়েছে। তারা ২০১০ থেকে টানা নয় বছর বিনা পরিশ্রমে কাজ করে আসছেন। ডিজিটাল সেন্টারের দৈনন্দিন আয় রোজগারেই চলছিল তাদের কর্মজীবন। এদিকে অনলাইনসহ বিভিন্ন মাধ্যমে রাজশাহী জেলায় ১৯ জন হিসাব সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর উদ্যোক্তাদের মাঝে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন কয়েকজন উদ্যোক্তা। উদ্যোক্তদের পক্ষ থেকে এ নিয়োগ কার্যক্রম।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button