দূর্গাপুররাজশাহী সংবাদ

রাজশাহীর দুর্গাপুরে বৃষ্টিপাতের ফলে চাষিদের মাথায় হাত

দুর্গাপুর প্রতিনিধি : কয়েক দিনের টানা বৃষ্টিপাতে রাজশাহীর দুর্গাপুরে মরিচ, পেঁপে, করলা, চিচিক্সগা, মাসকলাই ও লাউসহ বিভিন্ন সবজিখেতে মড়ক দেখা দিয়েছে। হঠাৎ আশ্বিনের টানা বৃষ্টির ফলে চাষিদের মাথায় হাত পড়েছে।

চাষিরা জানান, কয়েক দিনের টানা বৃষ্টিপাতে মরিচ, করলা, লাউ, পেঁপে ও বিভিন্ন সবজিখেতের ফুল ও ফল নষ্ট হয়ে গেছে। বর্তমানে জমিতে জলাবদ্ধতায় অতিরিক্ত স্যাঁতসেতে থাকায় বিভিন্ন সবজিগাছ মরে যাচ্ছে। ফলে এবার ভারী বর্ষণের কবলে পড়ে লোকসান গুণতে হবে উপজেলার কয়েক হাজার সবজি চাষির।

সোমবার সরেজমিনে উপজেলার দেবীপুর, হাটকানপাড়া, শালঘরিয়া, শ্যামপুর, সুখানদিঘী, আলীপুর, বখতিয়াপুর, সূর্যভাগ, কাশিপুর, নান্দিগ্রাম এলাকার ফসলের মাঠ ঘুরে দেখা গেছে ভারী বর্ষণের ফলে চাষিদের ফসল ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এ সময় চাষিরা জানিয়েছেন, এবার উপজেলায় বেশি পরিমাণ জমিতে ভুট্টা মরিচ করলা পেঁপে চিচিঙগা ও লাউচাষসহ বিভিন্ন সবজি হয়ে ছিলো।

বিভিন্ন ফসলের মাঠ থেকে চাষিরা আলু, পেঁয়াজ উঠানোর পর অনুকূল আবহাওয়া চাষিরা ভুট্টা, মরিচ, পেঁপে, করলা ও লাউ চাষ করেছিলেন। ফলনও হয়েছিলো ভাল। কিন্তু চাষিরা তাদের ফসল মরিচ, করলা, পেঁপে, কপি ও লাউগাছগুলোতে ফুল ও ফল আসতে শুরু করেছে ঠিক তখনই টানা বৃষ্টিপাতে চাষিদের কপাল পুড়ল। দুর্গাপুর পৌর এলাকার দেবীপুর গ্রামের কৃষক সান্টু মিয়া ডাঙা জমিতে প্রায় দেড় বিঘা জমিতে মরিচ চাষ করেছিলেন বলে জানান। প্রথম দিকে তিনি ওই মরিচখেত কিছু মরিচ বিক্রি করেছেন।

মাঝখানে গত কয়েক দিনের বৃষ্টিপাতে তার খেতের মরিচের গাছ মরে গেছে। উপজেলার হাটকানপাড়া গ্রামের আশরাফুল ইসলাম বলেন, বর্তমান বাজারে লাউয়ের দাম বেশ ভাল। তিনি প্রায় ১ বিঘা জমির উপর মাচা করে লাউচাষ করেছিলেন। প্রথম দিকে কিছু টাকার লাউ বিক্রি করলেও কয়েক দিনের ভারী বর্ষণে লাউয়ের ফুল ও ফল নষ্ট হয়ে যায়। বর্তমানে জমি অতিরক্ত নরম থাকায় তার লাউগাছ মরে যাচ্ছে বলে তিনি জানান। তিনি আরো বলেন, আমার সাথে রোপণ করা অন্য চাষিদের সবজিগুলোরও একই অবস্থা।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মসিউর রহমান বলেন, শুধু এই উপজেলায় নয়, কয়েক দিনে সারাদেশেই প্রচুর পরিমাণ বৃষ্টি হয়েছে। এতে কৃষিক্ষেত্রে উপকার হলেও টানা বৃষ্টিতে কৃষকের উঠতি ফসলের কিছু ক্ষতি হয়েছে। মাঠ পর্যায়ে তদন্ত সাপেক্ষে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের তালিকা তৈরি করা হচ্ছে। আর দু একদিনের মধ্যে আবহাওয়া ভাল হলে

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button