রাজশাহী সংবাদ

রাজশাহীতে পুলিশি পাহারায় পেঁয়াজ বিক্রি

নিজস্ব প্রতিবেদক:
রাজশাহীতে পুলিশি পাহারায় বিক্রি হচ্ছে ট্রেডিং কর্পোরেশন অফ বাংলাদেশ (টিসিবি) এর পেঁয়াজ। রাজশাহী নগরীর ৫টি পয়েন্টে খোলা বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি করছে ডিলাররা। আজ রোববার সকাল সাড়ে ৯ টা থেকে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহীর পা৭টি পয়েন্টের মধ্যে নগরীর সাহেববাজার জিরো পয়েন্ট, কোর্ট এলাকা, ভদ্রা মোড়, গোরহাঙ্গা রেলগেট ও আমচত্ত্বর এলাকায় ট্রাকে করে বিক্রি হচ্ছে টিসিবির পেঁয়াজ। পেয়াঁজ ক্রয় করতে ক্রেতাদের ভীড় লক্ষ্য করা গেছে। তবে পর্যাপ্ত পেঁয়াজের যোগান রয়েছে বলে জানিয়েছে টিসিবির ডিলাররা।

টিসিবি সুত্র জানায়, রোববার সকাল থেকে নগরীর ৫টি পয়েন্টে ৪৫ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। বাজার থেকে একজন ভোক্তা প্রতিদিন সর্বোচ্চ এক কেজি পেঁয়াজ কিনতে পারবেন। বর্তমান খুচরা বাজারের চাইতে ১০০ থেকে ১২০ টাকা কমে ক্রেতারা পেঁয়াজ সংগ্রহ করতে পারবেন।

নগরীর সাহেব বাজার জিরো পয়েন্ট, রেলগেট, ভদ্রা এলাকা ঘুরে টিসিবির পেঁয়াজ ক্রয় করতে ক্রেতাদের ব্যাপক ভীড় লক্ষ্য করা যায়। নগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে দলে দলে পেঁয়াজ সংগ্রহ করতে আসছেন ক্রেতারা। লাইনে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার বিভিন্ন বয়সীয় নারী পুরুষদের পেয়াজ কিনতে দেখা গেছে প্রতিটি ট্রাকের সামনে। শুধু নগরী নয়, নগরীর বাইরে থেকে পেয়াঁজ সংগ্রহ করছেন ক্রেতাগন। তবে জন প্রতি ১ কেজির বেশি পরিমান পেঁয়াজ বিক্রির দাবি জানান ক্রেতারা।

নওগাঁর মান্দা থেকে রাজশাহী কলেজে এসেছিলেন শিক্ষার্থী আহসান হাবিব। বাড়ি ফেরার পথে পেঁয়াজ সংগ্রহ করে নিযে যাচ্ছেন তিনি। আহসান হাবিব বলেন, পেঁয়াজের মূল্য সবখানে বেশি। যেখানে কম পাওয়া যায় সেখানে পেঁয়াজ সংগ্রহ করছি। তবে টিসিবি ১ কেজি করে না দিয়ে ৫ কেজি করে পেঁয়াজ দিলে আমাদের খুব উপকার হতো।

নগরীর মহিষবাথান এলাকার আব্দুল জাব্বার বলেন, বাজারে যা পেঁয়াজ আছে তা সাধারণ জনগনের জন্য ক্রয়সাধ্য নয়। এর লাগাম টেনে নিচে না নামানো পর্যন্ত মানুষ শান্তি পাবে না। টিসিবি যে কার্যক্রম শুরু করেছে তা উপকারী কিন্তু পরিমান যথাসাধ্য নয়।

বাজারে ক্রেতাদের চাহিদা পুরণে টিসিবি প্রতিদিন সরবরাহ করবে মোট পাঁচ টন পেঁয়াজ। প্রতি পয়েন্টে দেয়া হবে এক টন করে। দেশে পেঁয়াজের বাজার স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত টিসিবির এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

টিসিবির রাজশাহী কার্যালয়ের আঞ্চলিক প্রধান প্রতাপ কুমার জানান, পেঁয়াজের মূল্য স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত খোলা বাজারে টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রি অব্যাহত থাকবে। বিমানযোগে আমদানী করা পেঁয়াজগুলোই বিক্রি করা হবে। আজ থেকে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হয়েছে। এটি চলতে থাকবে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button