রাজশাহী সংবাদ

রাজশাহীতে চলন্ত অ্যাম্বুলেন্সের ইঞ্জিনে আগুন, ৯৯৯-এ কল করে রক্ষা

রাজশাহীতে চলন্ত অ্যাম্বুলেন্সের ইঞ্জিনে আগুন, ৯৯৯-এ কল করে রক্ষা

স্টাফ রিপোর্টারঃ
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল থেকে রোগী নিয়ে পাবনার ঈশ্বরদী রেখে পুনরায় হাসপাতালে ফিরছিলেন চালক কোরবান আলী। গতকাল রাত সাড়ে ৯টার দিকে রাজশাহী নগরীর নর্দান ইউনিভার্সিটি মোড়ে পৌঁছালে হঠাৎ অ্যাম্বুলেন্সের ইঞ্জিনে আগুন লেগে যায়।

দ্রুত অ্যাম্বুলেন্স থামিয়ে তড়িঘড়ি দরজা খুলে নেমে যান চালক কোরবান। আশপাশে কাউকে না পেয়ে কী করবেন বুঝতেই পারছিলেন না। এদিকে, ক্রমেই অ্যাম্বুলেন্সের ভেতরে বাড়তে থাকা ধোঁয়া! হঠাৎ মাথায় আসে ৯৯৯-এ কল সেবার বিষয়টি। তাৎক্ষণিক মোবাইল থেকে ৯৯৯-এ কল করে জানান তিনি।

তার দেওয়া তথ্যে কয়েক মিনিটের মধ্যে ঘটনাস্থলে হাজির হন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ফায়ার স্টেশনের কর্মীরা। আধাঘণ্টার চেষ্টায় নেভানো হয় আগুন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ফায়ার সার্ভিসের স্টেশনে দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার মাসুদ রানা সংবাদ চলমান.কম-কে বলেন, ‘অ্যাম্বুলেন্সের ব্যাটারি থেকে শর্টসার্কিট হয়ে আগুনের সূত্রপাত হয়। শুধুমাত্র ব্যাটারি পুড়েছে অ্যাম্বুলেন্সটির। তবে সেখানে থাকা গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হলে গোটা অ্যাম্বুলেন্সটি অকেজো হয়ে যেতো। আশপাশে বিদ্যুৎ এর খুঁটি ও তারও ছিল। সেগুলোও ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা ছিল।’

অ্যাম্বুলেন্সের চালক কোরবান আলী বলেন, ‘শুধুমাত্র ব্যাটারি পুড়েছে। ৬০ থেকে ৬৫ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। হঠাৎ ৯৯৯ এ কল করার বিষয়টি আমার মাথায় এসেছিল। এতে আমার অ্যাম্বুলেন্সটি বেঁচে গেছে। এটার ওপর নির্ভর করে আমার ৮ সদস্যের পরিবারের রুটি-রুজির ব্যবস্থা করি। অ্যাম্বুলেন্স পুড়ে গেলে আমাকে পথে বসতে হতো।’

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button