গোদাগাড়ীরাজশাহী সংবাদ

রাজশাহীতে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষ, ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র খুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষ চলাকালীন সময় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে শান্ত (১৮) নামের এক কলেজছাত্র খুন হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার দেওপাড়া ইউনিয়নের কদমশহর মোড়ে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে শান্ত নামের এক কলেজছাত্র আহত হন। পরে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত কলেজছাত্র শান্ত কদমশহর গ্রামের আবু সাঈদের ছেলে। সে রাজশাহী নগরীর উপকন্ঠ পবা উপজেলার দামকুড়া কলেজের একাদশ শ্রেনীর ছাত্র।

এ ঘটনায় তার জমজ ভাই স্বপনও (১৮) আহত হয়েছেন। তারও শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। তাকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্বপনও একই কলেজে একই শ্রেনীতে পড়েন।

রামেক হাসপাতালের উপপরিচালক সাইফুল ফেরদৌস বলেন, শান্তর ঘাড়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। এ কারণে হাসপাতালের পৌঁছার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। আর তার ভাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আসাদুল হক বলেন, বিকালে ক্রিকেট খেলা নিয়ে মাঠে শান্ত ও স্বপনের সঙ্গে একই এলাকার আজিবুর রহমানের ছেলে সাজেদুল ইসলাম সাজুর (২৪) কথা কাটাকাটি হয়।

খেলা শেষে সন্ধ্যায় দু’পক্ষের মধ্যে আবারও কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সাজুর বড় ভাই মাজিদুল ইসলাম মাজু (২৬) এলে সংঘর্ষ বাধে।

সংঘর্ষের চলাকালীন সময় ছুরিকাঘাতে তারা দুই ভাই আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা শান্তকে মৃত ঘোষণা করে।

গোদাগাড়ী থানার ওসি খাইরুল ইসলাম বলেন, নিহত শান্তর লাশ উদ্ধার ময়নাতদন্তের জন্য রামেকের (ফরেনসিক বিভাগ) প্রেরণ করা হয়েছে।ময়নাতদন্ত শেষে আজ শুক্রবার দুপুর ৩টার দিকে নিহতের মরদেহ তার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, এ ঘটনায় নিহতের বাবা সাইদ আহম্মেদ বাদি হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। তদন্তের সার্থে আসামীর সংখ্যা বলা এখনই সম্ভবব হচ্ছে না। তবে এ মামলার প্রধান আসামী সাজু ও মাজু’র মাকে আটক করা হয়েছে।

অন্যান্য অভিযুক্তদের আটকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান ওসি।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button