বাঘারাজশাহী সংবাদ

বাঘায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ, ১৮ ট্রাক্টরের জরিমানা

বাঘা প্রতিনিধি:
রাজশাহীর বাঘায় পদ্মা নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা। আজ মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বাঘা থানা পুলিশের সহযোগিতায় এই বালু উত্তোলন বন্ধ করে দিয়ে ১৮টি ট্রাক্টরের জরিমানা করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার নারায়নপুর সড়কঘাট এলাকায় পদ্মা নদীর কোল ঘেষে ফসলি জমির পাশ দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছে কতিপয় প্রভাবশালী মহল। এই বালু উত্তোলনের ফলে একদিকে নষ্ট হচ্ছে এলাকার পরিবেশ, অন্যদিকে কৃষকদের ফসলি জমি ও ঘর-বাড়ি, গাছপালা নদীগর্ভে বিলিন পথে।

এই অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের প্রতিকার চেয়ে ২৮ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী, জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট লিখিত অভিযোগ করেন নারায়নপুর সড়কঘাট এলাকার শতাধিক বাসিন্দা।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তিরা স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাদের ম্যানেজ করে অবৈধভাবে বালু উত্তেলান করছিল। ফলে এলাকার রাস্তা-ঘাট নষ্ট, স্কুলগামী শিক্ষার্থী ও পথচারীদের চলাচলে বিঘ্ন। পাশাপাশি ঘটছে দুর্ঘটনা।

উপজেলার নারায়নপুর সড়কঘাট এলাকার আব্দুস সামাদ, হাফিজুর রহমান, কাশেম প্রামানিক, আনজারুল হাসান অভিযোগ করে জানান, বর্তমানে যারা বালু উত্তোলন করছে, তারা সংঘবদ্ধ একটি চক্র। তারা প্রভাব খাটিয়ে বাধা উপেক্ষা ও রাজনৈতিক নেতাদের ম্যানেজ করে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছিল। নিরুপায় হয়ে এলাকাবাসী প্রধানমন্ত্রীসহ বিভিন্ন দপ্তরে প্রতিকার চেয়ে লিখিত অভিযোগ করা হয়। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরেজমিনে তদন্ত করে বালু উত্তোলন বন্ধ করে দিয়ে ১৮টি ট্রাক্টরের জরিমানা করা হয়।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা বলেন, নারায়নপুর সড়কঘাট পদ্মা নদীতে অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ঘটনাস্থলে বালু উত্তোলনের সাথে জড়িত কাউকে পাওয়া যায়নি। তবে ঘটনাস্থলে ১৮টি ট্রাক্টরের জরিমানা করা হয়েছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button