নওগাঁরাজশাহী সংবাদ

নওগাঁর পোরশায় সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি ২ জনকে পুলিশে দিল জনতা

চাঁদাবাজির সময় ৩০ হাজার টাকাসহ দুইজনকে আটক করে পুলিশ

পোরশা  প্রতিনিধি: নওগাঁর পোরশায় চাঁদাবাজির সময় ৩০হাজার টাকাসহ দুই জনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় জনগণ। বুধবার বিকেলে উপজেলার ছাওড় ইউনিয়নের কুশুমকুন্ডা গ্রামের পাশে এক স্কেবেটর (মাটি খনন যন্ত্র) চালকের কাছ থেকে চাঁদাবাজি করার সময় তাদেরকে আটক করে স্থানীয় লোকজন। এসময় তাদের কাছে থেকে নগদ ৩০ হাজার টাকা ও একটি কার গাড়ি (ঢাকা মেট্রো-গ-২২-৩১২৩) জব্দ করা হয়।

আটক সাংবাদিক পরিচয়দানকারী দু’জন হলেন, রাজশাহীর বোয়ালিয়া থানার বালিয়াপুকুর এলাকার জিন্নাত আলীর ছেলে মাসুদ রানা (৪০) এবং অপরজন দুর্গাপুর থানার বকতিয়ারপুর গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে রবিউল ইসলাম (৩০)। জানা যায়, সাংবাদিক পরিচয় দেবার পরে স্থানীয় জনগনের মধ্যে বহু তর্ক-বিতর্কের পরে স্থানীয় জনতা তাদেরকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। পরে তাদের ব্যবহৃত গাড়িটি ছাওড় ইউনিয়ন পরিষদের জিম্মায় রাখা হয়।

আটক সাংবাদিকদের বিষয়ে ছাওড় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ফখরুদ্দিন আলী আহম্মেদ জানান, আটক দু’জন নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে পুকুর খননের ঘটনা পত্রিকায় প্রকাশসহ বিভিন্ন ভয়ভিতি দেখিয়ে স্কেবেটর চালক কামরুজ্জামানের কাছ থেকে দুই বারে ৩০হাজার টাকা চাঁদা আদায় করেন। এরপর বিষয়টি ওই স্কেবেটার মেশিন চালক বুঝতে পেরে স্থানীয় লোকজনকে সাথে নিয়ে তাদের পিছু ধাওয়া করে। এসময় একটি সাদা রঙ্গের কারগাড়িসহ কুশারপাড়া মোড়ে এসে তাদের আটক করেন। এরপর সন্ধ্যার দিকে তাদেরকে পোরশা থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

পোরশা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহিনুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন এবং আটক সাংবাদিক মাসুদ রানা ও রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে থানায় চাঁদাবাজির নিয়মিত মামলা করার প্রক্রিয়া চলছে। আটককৃতদের গ্রেফতার দেখিয়ে জেলহাজতে পাঠানো হবে । তিনি আরো জানান, ক্রাইম নিউজের সাংবাদিক পরিচয়দানকারী এম এস রানা নামের আরেকজন সে পুলিশের উপস্থিত টের পেয়ে কৌশলে সটকে পড়ে। এম এস রানা চাপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে বাড়ি ,বর্তমানে সে রাজশাহী নগরীর শাহমুখদুম থানা এলকায় ভাড়া থাকে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button