দূর্গাপুররাজশাহী সংবাদ

দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এখন ঔষধ কোম্পানির গোয়ালঘর

নিজস্ব প্রতিবেদক ; দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এখন ঔষধ কোম্পানির প্রতিনিধি দের দখলে এমন তথ্য বেরিয়ে এসেছে দীর্ঘ অনুসন্ধানে। দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তার সহ স্টাফ প্রতিনিয়ত সরকারি কর্মচারির পরিবর্তে বিভিন্ন গুরুত্বপুর্ন স্থানে ব্যবহার করছে কোম্পানির প্রতিনিধি দের, এই নিয়ে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীরা পড়ছে প্রতিনিয়ত বিপাকে, অনেকেই কোম্পানির প্রতিনিধিদের ডাক্তার ভেবে বিভিন্ন ভাবে প্রতারিত হচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

ছবি: চিকিৎসা সেবা নিতে অাসা রোগীদের হাত থেকে ডাক্তারের দেওয়া পেসক্রিপশন ছিনিয়ে নিয়ে ছবি তুলছেন ঔষধ কোম্পানির প্রতিনিধিরা।

এ ছাড়াও হাসপাতালটির ডাক্তারদের আসার নিয়ম নিয়েও রয়েছে ডজন খানেক অভিযোগ। হাসপাতালে ভর্তি থাকা একাধিক রোগী অভিযোগ করে বলেন ছোট বড় কোন চিকিৎসক বেলা ১১টার পুর্বে হাসপাতালে আসেনা। হাসপাতালের বড় বাবু উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা তিনি গত মাসে অবসরে গেছেন, নতুন কোন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এখনো যোগদান করেন নাই এই পদের দ্বায়ীত্ব পালন করছেন আর এম ও, তিনিও খেয়াল খুশী মত অফিস করেন বলেও অভিযোগ রয়েছে।

হাসপাতালের জরুরী বিভাগ থেকে শুরু করে কথিত ঔষধ দেওয়ার স্থান পর্যন্ত এই কোম্পানির লোকদের দখলে রয়েছে বলেও এর সত্যতা মিলেছে। কোম্পানির দেওয়া লোভনীয় পন্য ও মাসের শেষে নগদ অর্থের কারনেই হাসপাতালের ডাক্তার আর তাদের অনিয়মের ফাঁদে পড়ে নিরহ সাধারন মানুষরা প্রতিনিয়ত হয়রানির শিকার হচ্ছে এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। জানতে চাইলে এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে সদ্য অবসরে যাওয়া ডাঃ দেওয়ান নাজমুল আলম সংবাদ চলমান কে বলেন, এই বিষয় গুলো আমি অনেক বার প্রতিরোধ করার চেষ্টা করেছি এখন দেখভাল করছেন আর এম ও সাহেব।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button