দূর্গাপুররাজশাহী সংবাদ

দুর্গাপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে নারীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
দুর্গাপুরে ফেরদৌসী বেওয়া নামের এক নারী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহক্যা করেছে। সোমবার সকালে উপজেলার যুগিশো গ্রামে তার বাবার বাড়িতে সে আত্মহত্যা করেন। তবে তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ। পুলিশ সন্ধ্যায় মৃত ব্যক্তির লাশটি সনাক্ত করে দাফনের জন্য অনুমতি প্রদান করেন।

এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, যুগিশো গ্রামের মিলন ওরফে (মিলির) মেয়ে ফেরদৌসী বেওয়া মানসিক ভারসাম্যহীন। গত প্রায় ৫ বছর আগে তার বিয়ে হয়। গত ৩ বছর আগে তার স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে তিনি দীঘ প্রায় ৩ বছর যাবৎ তার বাবার বাড়িতে বসবাস কর আসছিলো। এমত অবস্থায় পারিবারিক কলহের জের ধরে ফেরদৌসী বেওয়া (২২) সবার অজান্তে ঘরের তীরের সাথে রশি পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। ফেরদৌসী বেওয়া জন্মের পর থেকেই মানসিক ভারসাম্যহীন বলে দাবী তার পরিবারের।

এবিষয়ে দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খুরশিদা বানু কনা জানান, নিহত ফেরদৌসী বেওয়া জন্ম থেকেই মানসিক ভারসাম্যহীন। তাকে ওই এলাকার লোকজন ফেরদৌসী পাগলী নামেই চিনতো। সে নিজ ইচ্ছায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। দাফনের অনুমতি চেয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বাররে লিখিত পেক্ষিতে লাশ তাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো পড়ুন
Close
Back to top button