দূর্গাপুররাজশাহী সংবাদ

তৃণমূল চায় নতুন মুখ জেলা আ’লীগের আগামী নেতৃত্বে কর্মীবান্ধব নেতা চায়

দুর্গাপুর প্রতিনিধিঃ
আগামী ৪ ডিসেম্বর রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন। ওই সম্মেলনকে ঘিরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নেতা ও সমর্থকেরা প্রচার প্রচারনায় ঝড় তুলেছেন। র্দীঘদিনের রাজশাহীর ক্ষমতাশীল আওয়ামীলীগে নেতৃত্বের মূল্যায়ন প্রকাশ পাবে আগামী ৪ ডিসেম্বর । সুষ্ঠ, সুন্দর, শান্তির রাজনৈতিক সংগঠন আওয়ামীলীগের। বৃহত্তর এ সংগঠনের রাজশাহীর নেতৃীত্ব নিয়ে চলছে জল্পনা কল্পনা। তৃণমূল নেতাদের চলছে গুনঞ্জন । শুধু অপেক্ষার পালা আগামীতে এ জেলাই আওয়ামীলীগের নেতৃীত্ব দেবন কারা। আর নেতারা চায় নেতৃত্বে আসুক কর্মীবান্ধব নেতা। কার মাথায় দলীয় এই রাজমুকট উঠবে।

রাজশাহী জেলার দুর্গাপুর উপজেলা দলীয় সম্মেলন ঘিরে নেতাদের মধ্যে সরগম রয়েছে। চায়ের দোকান থেকে নেতাদের অফিস পর্যন্ত দিন-রাত নেতৃত্বে কর্মীবান্ধব নেতার প্রয়োজন। সেই কর্মীবান্ধব নেতার খোঁজে আলাপ আলোচনায় সরগম। তবে উপজেলার আওয়ামীলীগের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠন নেতৃীত্বে পরিবর্তন চায়। বৃহত্তর একটি রাজনৈতিক সংগঠন আওয়ামী লীগ। এ দলে নেতার যেমন অভাব নেই। তবে দলের নেতাদের বৈশিষ্ঠ অভাব রয়েছে বলে তৃণমূল নেতারা মন্তব্য করেন। তাই দুর্গাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাদের প্রত্যাশা জেলায় আগামী নেতৃত্ত্বে নেতা হবে‘মুখে নয় কাজ বাস্তবায়নের মাধ্যমে দলীয় নেতাদের মনে স্থান করে নিতে পারবেন। কর্মীদের প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থেকে নেতাদের কাজের পরিবেশ সৃষ্টি করতে পারবেন । দলীয় আর্দশে কর্মীদের সঙ্গে কাজ করলে কর্মযজ্ঞ নির্দিষ্ট গণ্ডিতে আবদ্ধ হয়ে পড়বে। নেতা বা কর্মীদের অন্ধকারে রেখে কাজে সফলতা অর্জন সম্ভব নয়। নেতা যা বলবেন এবং করবেন তা যেন সবার কাছে প্রত্যক্ষ হয়। দলীয় সকল নেতাকর্মী নিয়ে একই পথে দলকে পরিচালিত করতে হবে। নেতার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য এবং কর্মপন্থা কর্মীদের কাছে স্পষ্ট রাখাটা নেতাদের অন্যতম আদর্শ । এমন নেতার জন্ম হলে দল ও নেতাকর্মীরা আগামীতে এগিয়ে যাবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাস্তবায় করা সম্ভব হবে বলে মনে করেন স্থানীয় নেতারা। তবে রাজশাহীর তৃণমূল আওয়ামীলীগ এবার নেতৃীত্বের পরিবর্তন চায়। চায় সংগঠন প্রিয়, কর্মীবান্ধব নেতা। তবে সম্মেলনকে ঘিরে তৃণমূল নেতাদের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেজবুকে রাজশাহীর আওয়ামীলীগের নতুন নেতৃীত্বে রাজশাহী-৫ (পুঠিয়া-দুর্গাপুর) আসনে সাবেক এমপি ও খাদ্যমন্ত্রনালয় সর্ম্পকৃত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সফল সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদ দারার ঝড় উঠেছে। তৃণমূল আওয়ামীলীগের সমর্থকেরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেজবুকে ওই নেতার নেতৃীর সবগুন আছে বলে বিভিন্ন পোষ্ট ও কমেন্ট করে চলেছেন। শুধু তাই নয় সাধারন মানুষও চায় রাজশাহীর আওয়ামীলীগে আব্দুল ওয়াদুদ দারার মত দক্ষ, সাংগঠনিয় প্রিয় নেতার দরকার। র্দীঘদিন জেলা আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের সব চেয়ে বড় দাবি ছিল একজন সংগঠন প্রিয়, কর্মীবান্ধব নেতার। তাই আগামী সম্মেলকে ঘিরে আব্দুল ওয়াদুদ দারাকে দেখতে পাচ্ছে। আওয়ামীলীগের তৃণমূলের নেতা ও কর্মীরা দারার মত নেতার নেতৃীত্ব চায়। যেন আগামীতে রাজশাহীর আওয়ামীলীগে সুষ্ঠ, সুন্দর ও শান্তির রাজনীতি ফিরে আসে। দুর্গাপুর পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আজাহার আলী বলেন, একজন জনপ্রিয় নেতা যে সত্যিকার অর্থেই সৎ এবং ভালো মানুষ, জনকল্যাণে কাজ করেন, এমন নেতা আমরা চাই। কর্মীবান্ধব যে নেতা-কর্মীরদের, তার আপদে-বিপদে যিনি ঝাঁপিয়ে পড়েন। এতে নিয়ম-নীতি ভাঙল কি মচকালো তাতে কিছু যায় আসে না। এমন নেতা যদি জেলার নেতৃত্বে আসেন তাহলে এ জেলার আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক পরিবর্তন ঘটবে। সেই সাথে বলতে চাই রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বের পরির্বতন অতি প্রয়োজন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম বলেন, সৎ সাহসী,মেধাবী,কর্মীবান্ধব নেতা চাই। যে নেতা কর্মীদের মূলায়ন করবেন। সাহসীকতা ও দক্ষতার সাথে নেতাকর্মীদের নিয়ে কাজ করে যাবে। যার কথা আমরা শুনবোএবং আমাদের কথা ওই নেতা শুনবেন। সেই নেতার দরকার। কারণ রাজনীতির সঙ্গে ‘নীতি’ কথাটা যুক্ত আছে। নীতি হলো কিছু আদর্শ নিয়ম-কানুন। অতীতে আমরা দেখেছি যারা রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত থেকেছেন, তারা নীতি-নৈতিকতার চর্চা করেছেন। রাজনীতিবিদদের মানুষ শ্রদ্ধা করত। তাদের কথায় জীবন উৎসর্গ করতেও দ্বিধা বোধ করত না। রাজনীতি ছিল এক সময় দেশ ও মানুষের সেবা করার সবচেয়ে উত্তম পন্থা। যারা রাজনীতির খাতায় নাম লেখাতেন তারা আত্মস্বার্থ কখনো বিবেচনায় রাখতেন না। দেশ-জাতি, মানুষের কল্যাণই ছিল তাদের মূল উদ্দেশ্য। তারা জাতির কল্যাণ সাধনায় ব্রতী হয়ে নিজেদের দিকে তাকানোর সময় পেতেন না। জনগণের স্বার্থকে সবার উপরে স্থান দিয়ে সত্য ও ন্যায়ের পথে এগিয়ে চলতেন সব ধরনের ভয়-ভীতি, লোভ-লালসাকে উপেক্ষা করে। বৃহত্তর এ আওয়ামী লীগের দলে এমন নেতা আছে। তাকে চিনে নিয়ে দলের দায়িত্ব দিতে হবে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button