গোদাগাড়ীরাজশাহী সংবাদ

গোদাগাড়ীতে কাউন্সিলরের বাড়িতে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌরসভার এক কাউন্সিলরের বাড়িতে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহিদুল ইসলামের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে থানায় মামলা করা হয়েছে। এ মামলায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তারা সবাই গোদাগাড়ী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র।

ধর্ষণের শিকার মেয়েটি গোদাগাড়ীর একটি স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী। তাকে ধর্ষণের জন্য মূল অভিযুক্ত একজন। তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। অন্য দুজন অভিযুক্তের বন্ধু। এই দুজনের মধ্যে কাউন্সিলরের ছেলেও আছে। তাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগ আনা হয়েছে। গোদাগাড়ী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুর রাজ্জাক খান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ওই স্কুলছাত্রীর সঙ্গে এক ছাত্রের প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই ছাত্র তাকে তার বন্ধুর বাসায় নিয়ে যায়। এরপর সেখানে তাকে ধর্ষণ করে। পরে বাড়ি গিয়ে মেয়েটি তার পরিবারকে বিষয়টি জানায়। এরপর রাতেই মেয়েটির বাবা থানায় মামলা করেন।

গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খাইরুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়ে সোমবার রাতেই অভিযান চালিয়ে তিন কিশোরকে গ্রেপ্তার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মঙ্গলবার দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়। আর শারীরিক পরীক্ষার জন্য নির্যাতিত মেয়েটিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button