দূর্গাপুররাজশাহী সংবাদ

অবশেষে সেই কথিত প্রেসক্লাব থেকে অব্যহতি নিলেন সাংবাদিকবৃন্দ

 নিজস্ব প্রতিবেদক: মাত্র কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে সেই কথিত প্রেসক্লাব থেকে অব্যহতি চেয়ে লিখিত দিলেন একজন সাংবাদিক। দুর্গাপুর উপজেলা প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সাংবাদিক কোরবান আলী জীবন অভিযোগ করে বলেন, সামনে সাংবাদিকদের জন্য একটি সরকারি বরাদ্দ  আসছে এই সুযোগ কাজে লাগাতেই সুযোগ সন্ধানী রবিউল তড়ি ঘড়ি করে অপেশাদার সাংবাদিকদের নিয়ে এমন প্রেস ক্লাব তৈরির মত ঘটনা ঘটিয়েছে।
তিনি বলেন, যারা পেশাদার সাংবাদিক ভুল ক্রমে গিয়েছেন তারাও অল্প সময়ের মধ্যে সব কিছুই ঠিক করে নিবেন। সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম, সাংবাদিক গোলাম রসুল, দুর্গাপুর উপজেলার গুরুত্বপুর্ন সাংবাদিক হওয়ার পরেও তাদের কৌশলে ব্লাক মেইল করা হয়েছে বলেও জানান তারা, তবে তরুন সাংবাদিক সাহিন আলম এর তিব্র প্রতিবাদ করে বলেন, আমি এরই মাঝে লিখিত দিয়েছি সেই কথিত ক্লাবের সাথে আমি নেই।
সাংবাদিক বাবুল সহ ১২ জন সাংবাদিক এর প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, আমরা দীর্ঘ সময় দুর্গাপুর উপজেলায় সাংবাদিকতা করে আসছি আর আমাদের না জানিয়ে ৪জন প্রার্থী হয়ে এমন ঘটনার জন্ম দিয়েছে। তারা বলেন সাধারন মানুষ তো বুঝবেনা এই ঘটনা একটি নাটক মাত্র। আমরা নিজেরাই লজ্জিত যে একজন ব্যক্তি তার নিজের স্বার্থ হাসিলের জন্য কিভাবে ক্লাবের নামে অপপ্রচার চালাতে পারে। তবে সকল পেশাদার সাংবাদিক দের অভিযোগ এর মুল হোতা এই ভাংগির পাড়ার রবিউল। সাংবাদিক বাবুল বলেন, উপজেলার সাংবাদিকদের মান ক্ষুন সহ বিভিন্ন অপরাধ মুলক কাজে জড়িত থাকাই এই রবিউলের কাজ।
রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগ এর গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা একজন সাবেক সংসদ বলেন, এর আগেও রবিউলের নামে অনেক কিছু শুনেছি উপজেলার সরকারি অর্থ লোপাট সহ কয়েক টি অভিযোগ রয়েছে তার নামে। তবে সিনিয়র সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রেসক্লাবের নামে নব প্রতারনার বিষয়টি সকলেই জেনে গেছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button